StudyWithGenius

Class 9 Model Activity Task Part 7 October New 2021 | নবম শ্রেণী মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক | Bengali, English, History, Geography

Class 9 All Subject Model Activity Task Part 7

class 9 model activity task part 7, class 9 model activity task part 7 and 8, class 9 model activity task part 7 answer, class 9 model activity task part 7 answer key, class 9 model activity task part 7 bangla, class 9 model activity task part 7 chemistry, class 9 model activity task part 7 download, class 9 model activity task part 7 english, class 9 model activity task part 7 exercise, class 9 model activity task part 7 full, class 9 model activity task part 7 geography, class 9 model activity task part 7 history, class 9 model activity task part 7 mathematics, class 9 model activity task part 7 maths, class 9 model activity task part 7 mcq, class 9 model activity task part 7 of english, class 9 model activity task part 7 of science, class 9 model activity task part 7 online, class 9 model activity task part 7 physics, class 9 model activity task part 7 question answer, class 9 model activity task part 7 wbbse, lass 9 model activity task part 7 sastho o sarirsikhkha

WBBSE West Bengal Board of Secondary Education Class 9 All Subject Part 7 Model Activity Task Solution in Bengali . New Model Activity Task of Class 9 October Answers PDF or Text based answers.

Class 9 Model Activity Task Part 7
SWG Academy

Class 9 Model Activity Task Bengali Part 7 October

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

বাংলা (প্রথম ভাষা)

নবম শ্রেণি

১. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

১.১ ‘নব নব সৃষ্টি’ প্রবন্ধে বাংলা সাহিত্যে বিদেশি শব্দ ব্যবহারের যে সকল দৃষ্টান্ত লক্ষ করা যায় তা উল্লেখ করো।

উত্তর: প্রাবন্ধিক সৈয়দ মুজতবা আলী তাঁর ‘নব নব সৃষ্টি’ প্রবন্ধে  প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে বাংলা সাহিত্যে বিদেশি শব্দের বিপুল ব্যবহারের কয়েকটি চমৎকার দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন। তিনি জানিয়েছেন-

(ক) রবীন্দ্রনাথ স্বয়ং তাঁর সাহিত্যে সচ্ছন্দে ব্যবহার করে গেছেন ‘অব্ৰু’, ‘ইজ্জত’, ‘ইমান’ প্রভৃতি বিদেশি শব্দ।

(খ) বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম তিনিও তাঁর সাহিত্যের মধ্য দিয়ে বাংলা শব্দ ভান্ডারে ঢুকিয়ে দিয়ে গেছেন- ‘ইনকিলাব’, ‘শহীদ’ এই দুটি বিদেশি শব্দ।

(গ) বিদ্যাসাগর স্বয়ং ছদ্মনামে যে সমস্ত সাহিত্য রচনা করেছিলেন সেখানেও তিনি চুটিয়ে আরবি-ফারসি বিদেশি শব্দের ব্যবহার করে গেছেন।

  এছাড়াও, ‘আলালের ঘরে দুলাল’, ‘হুতোম প্যাঁচার নকশা’ প্রভৃতি গ্রন্থে বিদেশি শব্দের বিপুল ব্যবহার বাংলা সাহিত্যে বিদেশি শব্দ ব্যবহারের দৃষ্টান্ত হয়ে আছে। 

১.২ ‘পৃথিবীর কোনো পথ এ কন্যারে দেখে নি কো’— উদ্ধৃতাংশে কোন কন্যার কথা বলা হয়েছে? পৃথিবীর কোনো পথ  তাকে দেখেনি কেন?

উত্তর: উদ্ধৃতাংশটি বঙ্গ প্রকৃতির রূপমুগ্ধ কবি জীবনানন্দ দাশ রচিত ‘আকাশে সাতটি তারা’ কবিতা থেকে গৃহীত হয়েছে।

কন্যার পরিচয়- উদ্ধৃতাংশে কবি জীবনানন্দ দাশ কন্যা বলতে বুঝিয়েছেন বঙ্গ প্রকৃতির নীল সন্ধ্যাকে। সৌন্দর্যের বিচারে কবি বঙ্গ প্রকৃতির নীল সন্ধ্যার সৌন্দর্য কে কোনো কেশবতী কন্যা রূপে দেখেছেন।


          কবি জীবনানন্দ দাশ দেখেছেন বঙ্গ প্রকৃতির বুকে আগত নীল সন্ধ্যা কোনো কেশবতী নারীর চুলের রঙ, সৌন্দর্যের কথা মনে করিয়ে দেয়। নারীর চুলের স্পর্শ যেমন যেকোনো মানুষ অনুভব করতে পারে ঠিক তেমনি কবি বাংলার এই নীল সন্ধ্যার বিরল স্পর্শ অনুভব করে মুগ্ধ হন। কবি পৃথিবীর অনেক স্থান ঘুরেছেন, পৃথিবীর অনেক স্থানে তিনি সন্ধ্যা দেখেছেন কিন্তু বঙ্গ-প্রকৃতির  সন্ধ্যার এই নারীময় রূপ সৌন্দর্য তিনি আর কোথাও দেখেননি,উপভোগ করতে পাননি। তাই কবির দৃঢ় বিশ্বাস বঙ্গ প্রকৃতি ছাড়া, পৃথিবীর কোনো পথে এই কেশবতী কন্যা স্বরূপ নীল সন্ধ্যা কে দেখতে পাওয়া অসম্ভব।

১.৩…..তুমি ঠিক সেইরূপ নারী, যাকে আজ প্রয়োজন। – কাকে একথা লেখা হয়েছে? তাকে কেন প্রয়োজন?

উত্তর: উদ্ধৃতাংশটি স্বামী বিবেকানন্দ রচিত ‘চিঠি’ নামক প্রবন্ধ থেকে গৃহীত হয়েছে।

আলোচ্য উক্তিটি স্বামী বিবেকানন্দ তাঁর অন্যতম শিষ্যা কল্যাণীয়া মিস মার্গারেট এলিজাবেথ নোবেল অর্থাৎ ভগিনী নিবেদিতা কে উদ্দেশ্য করে বলেছেন।

স্বামী বিবেকানন্দ জানিয়েছেন ভারতবর্ষের সমাজ, শিক্ষা, সভ্যতা সব স্তরে নারীরা চূড়ান্ত ভাবে বঞ্চিত। পুরুষশাসিত সমাজে নারীরা পুরুষের সেবাদাসী ছাড়া আর কিছু নয়। এই পুরুষশাসিত সমাজের বুকে দাঁড়িয়ে নারীদের মুক্তি শিক্ষা এবং কল্যাণের জন্য একজন সিংহী-স্বরূপ নারীর প্রয়োজন। স্বামীজি মিস নোবেল এর মধ্যে নারীর সিংহী- স্বরূপ সমস্ত গুণ-পবিত্রতা, শিক্ষা, ঐকান্তিকতা সমস্তই দেখতে পেয়েছিলেন। তাই স্বামীজি ভারতবর্ষের নারী কল্যাণের জন্য পুরুষশাসিত সমাজে নারীর অধিকার ছিনিয়ে আনার জন্য মিস নোবেল এর মতই যোগ্য নারীর প্রয়োজন অনুভব করেছিলেন।

১.৪ ‘সারাটা দিন আপন মনে ঘাসের গন্ধ মাখে -কে এমনটি করে থাকে? তার এমন করার কারণ কী?

উত্তর: উদ্ধৃতাংশটি কবি নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী রচিত ‘আবহমান’ কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে।

নিজের প্রাচীন জন্মভূমি অর্থাৎ গ্রামীণ বঙ্গ-প্রকৃতিকে ত্যাগ করে যে সমস্ত মানুষজন কর্মসূত্রে শহরে চলে যান সেই মানুষদের কথায় আলোচ্য অংশে বলা হয়েছে।
       

কবি জানিয়েছেন, যে সমস্ত মানুষজন গ্রামীণ বঙ্গ-প্রকৃতির কোলে জন্মগ্রহণ করে কর্মসূত্রে শহরের চলে যায় তাদের মনে সুপ্ত পিপাসার মত লুকিয়ে থাকে গ্রামীণ বঙ্গ প্রকৃতিকে ফিরে পাওয়ার বাসনা। এই মানুষেরা গ্রামীণ বঙ্গ প্রকৃতিকে মনের মধ্যেই অনুভব করেন। শহরের বুকে গ্রামীণ ঘাসের সুগন্ধি উপাদান সেভাবে না পাওয়া গেলেও যারা একবার বঙ্গ-প্রকৃতিকে অনুভব করেছে, ভালোবেসেছে তারা মনে মনে লাশের গন্ধ অনুভব করে পরিতৃপ্ত হয়।

১.৫ ‘রাধারাণী কাঁদিতে কাঁদিতে কতকগুলি বনফুল তুলিয়া তাহার মালা গাঁথিল। —রাধারাণীর পরিচয় দাও। তার মালা গাঁথার উদ্দেশ্য কী?

উত্তর: উপরোক্ত উক্তিটি সাহিত্য সম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় রচিত ‘রাধারানী’ পাঠ্যাংশ থেকে নেওয়া হয়েছে।

রাধারানীর পরিচয়- ‘রাধারানী’ পাঠ্যাংশ থেকে জানা যায় যে রাধারানী দশ-এগারো বছরের এক বালিকা তার বাড়ি শ্রীরামপুর। সে পিতৃহীনা। একদা ধনীর মেয়ে হওয়া সত্ত্বেও বর্তমানে চরম দরিদ্রগ্রস্থ।


রাধারানী দের জীবন ছিল চরম দরিদ্রতা ক্লিষ্ট। রাধারানীর মা কোনক্রমে কায়িক পরিশ্রম করে অন্নসংস্থান করতেন। কিন্তু হঠাৎ রাধারানীর মা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় আহার এবং মায়ের পথ্য সংস্থানের সমস্যা তৈরি হয়। রথের দিন রাধারানীর মায়ের অসুস্থতা বাড়ে। ওষুধ এবং খাবার কেনার একান্ত প্রয়োজনে নিরুপায় রাধারানী কয়েকটি বনফুল কুড়িয়ে এনে মালা গাঁথে। সেই মালা সে বিক্রির উদ্দেশ্যে মাহেশের রথের মেলায় নিয়ে যায় যাতে দু-একটি পয়সা পেলে সে মায়ের পথ্যের এবং ন্যূনতম আহারের সংস্থান করতে পারে।

২. নীচের ব্যাকরণগত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

২.১ ‘কেরোসিন’ উৎসগতভাবে কোন শ্রেণির শব্দ?

উত্তর: কেরোসিন শব্দটি ইংরেজি ভাষা থেকে গৃহীত হয়েছে।
অর্থাৎ উৎসগত দিক থেকে এটি একটি বিদেশি কৃতঋণ বা বিদেশি আগন্তুক শব্দ।

২.২ একটি মৌলিক শব্দের উদাহরণ দাও।

উত্তর: একটি মৌলিক শব্দের উদাহরণ হল- পা, হাত

২.৩ ‘নবগঠিত শব্দ’ বলতে কী বোঝ?

উত্তর: যে সমস্ত শব্দ একাধিক ভাষার শব্দের সংমিশ্রণে অর্থাৎ তৎসম, তদ্ভব, দেশি, বিদেশি শব্দের সাথে অপর কোন শব্দের সংযোগে কিংবা কোনো বিদেশী শব্দের অনুবাদের কারণে সৃষ্টি হয় সেই সমস্ত শব্দগুলিকে নবগঠিত শব্দ নবসৃষ্ট শব্দ বলে।
যেমন- খানাতল্লাশি, ফুলমোজা

২.৪ পোর্তুগিজ ও হিন্দি ভাষার শব্দ যুক্ত করে তৈরি একটি মিশ্র শব্দের উদাহরণ দাও।

উত্তর: পর্তুগিজ এবং হিন্দি ভাষার শব্দ যোগে তৈরি একটি মিশ্র শব্দ হলো- পাউরুটি।

২.৫ Tear gas-এর বাংলায় অনূদিত শব্দটি কী?

উত্তর: ‘Tear Gas’-এর বাংলা অনুবাদ হল ‘কাঁদানে গ্যাস’।

Class 9 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 9 Model Activity Task English Part 7 October

MODEL ACTIVITY TASK
CLASS – IX
ENGLISH

Read the passage carefully and answer the following questions:

Tom always found Monday mornings to be miserable. Monday began another week’s slow suffering in school. Tom lay thinking. Presently, he wished that he was sick: then he could stay home from school. He investigated his body with the hope of finding some ailment. He thought that he had found symptoms of stomach trouble. He began to grow hopeful. However, the symptoms soon grew feeble and wholly went away. Tom thought further. Suddenly he discovered something. One of his upper front teeth was loose. He felt lucky. He was about to groan when it occurred to him that if Aunt Polly was to know she would surely pull it out and that would hurt.

Tom thought he would hold the tooth in reserve for the present. He remembered hearing from a doctor that a certain ailment could lay up a patient for three days and make him lose a finger. He eagerly drew his sore toe from under the sheet and held it up for inspection. He did not know the necessary symptoms. However, it seemed like a good chance. Tom fell to groaning. But his brother Sid slept on.

Tom groaned louder. He fancied that he began to feel pain in the toe. No response came from Sid. Tom then started a succession of groans. However, Sid snored on.

Activity 1

Write ‘T’ for true and ‘F’ for false statements in the right hand box. Provide statements from the text in support of your answer.

i) Monday mornings were never good for Tom.

Ans: True.

Supporting Statement: Tom always found Monday mornings to be miserable.

(ii) Tom soon realised that he could not convince Aunt Polly of his stomach problem.

Ans: True.

Supporting Statement: However, the symptoms soon grew feeble and wholly went away.

iii) Tom was groaning because his toe was paining.

Ans: False.

Supporting Statement: He fancied that he began to feel pain in the toe.

Activity 2

Do as directed:

i) She will never forget the beautiful magic show. (Change into an affirmative sentence)

Ans: She will always remember the beautiful magic show.

ii) He turned every stone. (Change into a negative sentence)

Ans: He left no stone unturned.

iii) How happy I am! (Change into an assertive sentence)

Ans: I am very happy.

iv) Flowers are cheaper at Gariahat market. (Change into an interrogative sentence)

Ans: Are not flowers cheaper at Gariahat market?

Activity 3

You have been selected for the Bengal, Under-17 football team. Write an application to the Headmistress/Headmaster of your school seeking permission from her/him so that you can attend the trial camp.

Ans: 

To 

The Headmaster 

ABC High School

Kolkata,700001  

Subject – Application for permission to attend Football Trial Camp

Sir,

With due respect I beg to state that I am Rohit Sen, a student of class IX of your school.I am interested in sports. I am happy to inform you that I have been selected for the Bengal, under 17 football team. Now I have to attend the trial camp which will be arranged for a week. So I cannot attend my classes on those days.

I, therefore, request you to give me permission so that I can attend the camp. 

        
Thanking you                Yours Faithfully

Date-24/09/21              Name-Rohit Sen

                                              Class -IX

                                            Roll No – 15

Class 9 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 9 Model Activity Task History Part 7 October

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

নবম শ্রেণি

ইতিহাস

১. সঠিক তথ্য দিয়ে নীচের ছকটি পূরণ করো :

সন্ধি/চুক্তি

সময়কাল

স্বাক্ষরকারী

ব্রেস্ট-লিটোভস্কের সন্ধি

  

ভার্সাই সন্ধি

  

উত্তর: 

ন্ধি/চুক্তি

সময়কাল

স্বাক্ষরকারী

ব্রেস্ট-লিটোভস্কের সন্ধি

 ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দে

জার্মানি ও সোভিয়েত রাশিয়া

ভার্সাই সন্ধি

১৯১৯ খ্রিস্টাব্দে

জার্মানি ও ইংল্যান্ড-ফ্রান্স-রাশিয়া মিলিত মিত্রশক্তি জোট

২. সত্য বা মিথ্যা নির্ণয় করো :

২.১ ১৯২১ খ্রিস্টাব্দে শেয়ার বাজারে ধ্বস নামার ফলে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মহামন্দা দেখা দেয়।

উত্তর: মিথ্যা 

২.২ বেনিটো মুসোলিনি অক্টোবর, ১৯২২ খ্রিস্টাব্দে ইতালিতে ক্ষমতা লাভ করেন।

উত্তর: সত্য

২.৩ ‘নতুন অর্থনৈতিক নীতি’ (NEP) ১৯২১ খ্রিস্টাব্দে কার্ল মার্কস প্রবর্তন করেন।

উত্তর: মিথ্যা 

২.৪ হিটলারের উত্থানের পশ্চাতে অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক সংকট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।

উত্তর: সত্য

৩. সাত আটটি বাক্যে উত্তর দাও :

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর বিশ্বের মানচিত্রে কেমন ধরনের পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছিল ?

উত্তর: দীর্ঘ চার বছর ধরে বীভৎস ধ্বংসলীলা চলার পর অবশেষে 1918 সালে অবশেষে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অবসান ঘটে । এই যুদ্ধ ইউরোপ তথা বিশ্বের মানচিত্রে তথা রাজনৈতিক ক্ষেত্রে এক সুদুরপ্রসারী পরিবর্তনের সূচনা করে। এই পরিবর্তন গুলি হলো –

1. চারটি সাম্রাজ্যের পতন ঘটে। রোমান সাম্রাজ্য ১৯১৭ সালে জার্মান ও অস্ট্রো-হাঙ্গেরিয়ান সাম্রাজ্য ১৯১৮ সালে এবং অটোমান সাম্রাজ্য ১৯২২ সালে ধ্বংস হয়।

2. ভবিষ্যতে সরকার ব্যবস্থায় এবং আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার জন্য গড়ে তোলা হয় ‘লীগ অব নেশন’। যা পরে আবার ব্যর্থ হয়।

3. অস্ট্রিয়া, চেক স্লোভাকিয়া, এস্তোনিয়া, হাঙ্গেরি, লাটভিয়া, লিথুনিয়া এবং তুরস্ক স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে ওঠে।

4. ভার্সাই চুক্তির মাধ্যমে পরাজিত জার্মানিকে ২৬৯ বিলিয়ন ‘গোল্ড মার্ক’ জরিমানা করা হয় এবং জার্মানিকে অস্ত্রহীন করে ফেলা হয়।অর্থাৎ ভার্সাই চুক্তির মাধ্যমে জার্মানিকে কোনঠাসা করে ফেলা হয়, যা হিটলারের মাধ্যমে আরেকটি বিশ্বযুদ্ধের দিকে ঠেলে দেয় জার্মান জাতিকে।

5. অটোমান সাম্রাজ্যের উত্তর আফ্রিকা এবং মধ্যপ্রাচ্য বেদখল করা হয় এবং তুরস্কের নানা অংশ দখল করার লক্ষ্যে ব্রিটেন-ফ্রান্স-ইতালি-গ্রিস তুর্কী ভুখণ্ডে ঢুকে যায়। যদিও তুরস্ক সফলভাবে নিজেদের ভূখণ্ডকে রক্ষা করে। 

6. ১৯১৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল প্রথম সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র, রুশ ফেডারেশন 

৪. ১৫- ১৬ টি বাক্যে উত্তর দাও :

ইতালিতে কীভাবে ফ্যাসিবাদী শক্তির উত্থান ঘটেছিল আলোচনা কর।

উত্তর: ইটালির সমগ্র জাতি যখন নৈরাজ্যে নিমজ্জিত। মুসোলিনি সেই সংকটময় মুহূর্তে ইটালির রাজনীতির রঙ্গমঞ্চে আবির্ভূত হয়ে ইটালিবাসীর ত্রাণকর্তার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন।

ফ্যাসিস্ট দল গঠন ও প্রসার : ২৩ মার্চ ১৯১৯ খ্রিস্টাব্দে মিলান শহরে ১১৮ জন কর্মচ্যুত সৈনিক ও দেশপ্রেমিককে নিয়ে মুসোলিনি ফ্যাসি-ডি কম্বাটি মেন্টো নামে একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেন এই দলের সদস্যরা ‘ফ্যাসিস্ট’ নামে পরিচিত হয়। ফ্যাসিস্ট শব্দটির উৎপত্তি হয়েছে ল্যাটিন শব্দ ‘ফ্যাসেস’ থেকে—যার অর্থ শক্তি। এইদলের প্রতীক ছিল দড়ি বাঁধা কাষ্ঠ দণ্ড বাআঁটি। ফ্যাসিস্ট দল প্রতিষ্ঠার দু-বছরের মধ্যেই এর সদস্য সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় প্রায় ৩০ লক্ষ।

নির্বাচনে সাফল্য : ১৯২১ খ্রিস্টাব্দের সাধারণ নির্বাচনে অংশ নিয়ে এই দল ৩৫ টি আসন পাই এর ফলে ফ্যাসিস্টদের প্রভাব প্রতিপত্তি বৃদ্ধি পায়।

অরাজকতার বিনাশক : সমাজতন্ত্রীদের অরাজকতা ও নেতিবাচক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে মুসোলিনি দেশের রক্ষক ও অরাজকতার বিনাশক হিসেবে নিজেকে ইতালিবাসীর কাছে প্রতিপন্ন করতে পেরেছিলেন।

রোম অভিযান : ২৮ অক্টোবর, ১৯২২ খ্রিস্টাব্দে মুসোলিনি ফ্যাসিস্ট বাহিনী নিয়ে রোম অভিযান করেন। দুর্বল উদারপন্থী প্রধানমন্ত্রী লুইজি ফ্যাক্টর পদত্যাগ করলে রাজা তৃতীয় ভিক্টর ইমান্যুয়েল গৃহযুদ্ধ এড়াবার জন্য কোনো বাধা না দিয়ে মুসোলিনিকে প্রধানমন্ত্রী পদ গ্রহণের আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীরূপে মুসোলিনি : ভিক্টর ইমান্যুয়েলের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ৩০ অক্টোবর মুসোলিনি মন্ত্রীসভা গঠন করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর পদ গ্রহণ করেন। তাঁর প্রধানমন্ত্রী পদে নিযুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে ইটালিতে ফ্যাসিস্ট দলের প্রাধান্য প্রতিষ্ঠিত হয়।

Class 9 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 9 Model Activity Task Geography Part 7 October

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

নবম শ্রেণি

পরিবেশ ও ভূগোল

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :

নিরক্ষীয়তলে অবস্থিত বিষুবরেখার অক্ষাংশ হলো-

(ক) ৯০°

(খ) ৬০°

(গ) ০°

(ঘ) ৩০°

উত্তর: (গ) ০°

১.২ ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করো –

ক) ভঙ্গিল পর্বত – ব্যারেন

খ) স্তূপ পর্বত – হিমালয়

গ) আগ্নেয় পর্বত – সাতপুরা

ঘ) ক্ষয়জাত পর্বত – আরাবল্লী

উত্তর: ঘ) ক্ষয়জাত পর্বত – আরাবল্লী

১.৩ শিলামধ্যস্থ খনিজের সঙ্গে অক্সিজেনের রাসায়নিক বিক্রিয়ায় যে আবহবিকার সংঘটিত হয় তা হলো –

ক) অঙ্গারযোজন

খ) আর্দ্র-বিশ্লেষণ

গ) জলযোজন

ঘ) জারণ

উত্তর: ঘ) জারণ

১.৪ উত্তরবঙ্গের নদীগুলির একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো –

ক) নদীগুলি খরস্রোতা নয়

খ) বরফগলা জলে পুষ্ট

গ) নদীগুলির অসংখ্য শাখানদী

ঘ) অধিকাংশ নদী পশ্চিমবাহিনী

উত্তর: খ) বরফগলা জলে পুষ্ট

2. স্তম্ভ মেলানো :

ক’ স্তম্ভ

খ’ স্তম্ভ

২.১ ক্ষুদ্রকণা বিশরণ

i) ভারতীয় প্রমাণ সময়

২.২ কানাডা

ii) উষ্ণ মরু অঞ্চল

২.৩ এলাহাবাদ

iii) রাঢ় অঞ্চল

২.৪ বীরভূম

iv) মহাদেশীয় শীল্ড মালভূমি

উত্তর: 

ক’ স্তম্ভ

খ’ স্তম্ভ

২.১ ক্ষুদ্রকণা বিশরণ

ii) উষ্ণ মরু অঞ্চল

২.২ কানাডা

iv) মহাদেশীয় শীল্ড মালভূমি

২.৩ এলাহাবাদ

i) ভারতীয় প্রমাণ সময়

২.৪ বীরভূম

iii) রাঢ় অঞ্চল

 

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :

৩.১ কী কারণে কালবৈশাখী হয়?

উত্তর: কাল শব্দের অর্থ ধ্বংস এবং বৈশাখ মাসে উৎপত্তি হয় বলে একে কালবৈশাখী নামে অভিহিত করা হয়।

সাধারণত চৈত্রের শেষে এবং বৈশাখ মাসে সূর্য পশ্চিমবঙ্গ ও তার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর ও ভারত মহাসাগরের ওপর খাড়াভাবে কিরণ দেয়। ভূপৃষ্ঠ অত্যধিক গরম হলে বাতাস হালকা ও অস্থিতিশীল হয়ে পড়ে। উত্তপ্ত হালকা বাতাস সোজা উপরে উঠে শীতল হয়ে কিউমুলাস মেঘ সৃষ্টি করে। বায়ুমন্ডলের অস্থিরতা অব্যাহত থাকলে কিউমুলাস মেঘ উল্লম্বভাবে কিউমুলোনিম্বাস নামক কালো মেঘ গঠন করে এবং পরবর্তী সময়ে বজ্রঝড়ের সৃষ্টি করে। সাধারণ ঝড়ের সঙ্গে এই ঝড়ের প্রধান পার্থক্য হচ্ছে এ ঝড়ের সঙ্গে সবসময়ই বিদ্যুৎ চমকায় ও বজ্রপাত হয়।

৩.২ আবহবিকারের দুটি ফলাফল উল্লেখ করো।

উত্তর: যান্ত্রিক ও রাসায়নিক আবহবিকার একসাথে কাজ করলেও এক এক জলবায়ুতে এক এক প্রকার আবহবিকারের প্রাধান্য দেখা যায় এবং সেই মতো তার ফলাফলও ঘটে থাকে।

আবহবিকারের ফলাফল হল-

১. মৃত্তিকা সৃষ্টি
২. রেগোলিথ গঠন
৩. শিলায় ফাটল ও ভাঙন সৃষ্টি
৪. নদী, হিমবাহের দ্বারা ধসের সম্ভাবনা ঘটে
৫. শিলাখন্ড মূল ভূমি থেকে আলগা হয়ে যায়

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৪.১ স্তূপ পর্বতের তিনটি বৈশিষ্ট্য লেখো।

উত্তর: স্তূপ পর্বতের তিনটি বৈশিষ্ট্য হলো –

১) স্তূপ পূর্বত ভূ-পৃষ্ঠ থেকে হঠাৎ মাথা তুলে দাঁড়ায়। তাই এদের উভয় পার্শ্ব খাড়া ঢাল বিশিষ্ট হয়।

২) স্তূপ পর্বতের শীর্ষদেশের আকৃতি চ্যাপ্টা হয়।

৩) স্তূপ পর্বতের উচ্চতা ও বিস্তার ভঙ্গিল পর্বতের তুলনায় কম হয়।

৪) স্তূপ পর্বতের মাঝে অনেক চ্যুতিতল লক্ষ্য করা যায়।

৫) স্তূপ পর্বত ভূ-পৃষ্ঠের ওপর বিচ্ছিন্ন ভাবে অবস্থান করে।

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৫.১ ভূজালকের সাহায্যে কীভাবে পৃথিবীপৃষ্ঠের কোনো স্থানের অবস্থান নির্ণয় করা হয়?

উত্তর: ভুপৃষ্ঠস্থ সমমানের অক্ষাংশের বিশিষ্ট স্থানগুলো যোগ করে পূর্ব-পশ্চিমে অক্ষরেখা অঙ্কন করা সম্ভব হয়েছে। দ্রাঘিমা বিশিষ্ট স্থানগুলো যোগ করে উত্তর দক্ষিণে দ্রাঘিমারেখা অক্ষন করা হয়েছে। এরা পরস্পরের সঙ্গে লম্বভাবে অবস্থান করে পৃথিবীকে বেষ্টন করে জাল বা গ্রিড অর্থাৎ ভৌগোলিক জালক ( Geographical Grid) গঠন করেছে। প্রায় 250 খ্রিস্টপূর্বাব্দে গ্রিক জ্যোতির্বিদ এরাটোস্থেনিস ও হিপারকাস ভৌগোলিক জালকের সাহায্যে কোনো স্থানের অবস্থান নির্ণয় সম্পর্কে ধারণা দেন। সাধারণত গ্লোবের উপর অক্ষরেখা ও প্রতিমা রেখার সাহায্যে ভৌগোলিক জালক সৃষ্টি হয় এই জালকের ছেদবিন্দুগুলির সাহায্যে ভূপৃষ্ঠের যে-কোনো স্থানের অবস্থান নির্ণয় করা যায়, সুতরাং, কোন স্থানের অক্ষরেখা ও দ্রাঘিমারেখার ছেদবিন্দুই হল সেই স্থানের প্রকৃত অবস্থান। এই পদ্ধতিতে দুটি উপায়ে অবস্থান নির্ণয় করা যায়-

(১) স্বল্প পরিসর স্থানের ক্ষেত্রে কত ডিগ্রি অক্ষরেখা কত ডিগ্রি দ্রাঘিমারেখা ওই নির্দিষ্ট স্থানে ছেদ করেছে সেই ছেদবিন্দু বা স্থানাঙ্ক বিন্দুই ওই স্থানের প্রকৃত অবস্থান। যেমন কলকাতা 22°24′ উত্তর অক্ষরেখা ও 88°30′ পূর্ব দ্রাঘিমা রেখায় ছেদ বিন্দুতে অবস্থিত। 

(২) কোনো দেশ বা অঞ্চলের ক্ষেত্রে ওই দেশ বা অঞ্চল উত্তরে বা দক্ষিণে কত ডিগ্রি অক্ষরেখা এবং পূর্বে ও পশ্চিমে কত ডিগ্রি দ্রাঘিমারেখার মধ্যে অবস্থিত সেটাকেই ওই স্থানের প্রকৃত অবস্থান বলে। যেমন ভারত দক্ষিণে ৪°4′ উত্তর অক্ষরেখা থেকে উত্তরে 37°6′ উত্তর অক্ষরেখা পর্যন্ত এবং পশ্চিমে 68°7′ পূর্ব দ্রাঘিমা থেকে 97°25′ পূর্ব দ্রাঘিমার মধ্যে অবস্থান করছে।

ALL Class ALL Model Activities Click Here
 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
 Class 7 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here

 Class 7 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)

Click Here
 Class 8 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
 Class 8 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
Class 9 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
Class 9 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
Class 10 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
Class 10 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here

3 thoughts on “Class 9 Model Activity Task Part 7 October New 2021 | নবম শ্রেণী মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক | Bengali, English, History, Geography”

Leave a Comment

Your email address will not be published.