StudyWithGenius

Class 6 Model Activity Task Part 7 October New 2021 | ষষ্ঠ শ্রেণী মডেল অ্যাক্টিভিটি | Bengali, English, History, Geography

Class 6 All Subject Model Activity Task Part 7

class 6 model activity task part 7 answer,answer of model activity task class 6, bengali class 6 model activity task, class 6 jeevan vigyan model activity tax, class 6 model activity class bangla part 7, class 10 model activity english part 7, class 6 model activity class geography part 7, class 6 model activity class history part 7, class 6 model activity english part 7, class 6 model activity for geography, class 6 model activity gonit, class 10 model activity itihaas part 6, class 6 model activity life science part 7, class 6 model activity mathematics part 7, class 6 model activity task physical science answer, class 6 model activity task part 7 bengali, class 6 model activity task part 7 chemistry, class 6 model activity task part 7 download, class 6 model activity task part 7 english, class 6 model activity task part 7 exercise, class 6 model activity task part 7 full, class 6 model activity task part 7 geography, class 6 model activity task part 7 mathematics, class 6 model activity task part 7 maths class 6 model activity task part 7 notes, class 6 model activity task part 7 of science, class 6 model activity task part 7 online, class 6 model activity task part 7 question answer, class 6 model activity task part 7 solution, class 6 model activity task part 7 wbbse, class 6 model activity task part 7 west bengal board, class 6 model activity task part 7 with answers, class 7 model activity task part 7 sastho o sarirshikhkha 

WBBSE West Bengal Board of Secondary Education Class 6 All Subject Part 7 Model Activity Task Solution in Bengali . New Model Activity Task of Class 6 October Answers PDF or Text based answers.

Class 6 Model Activity Task Part 7
SWG Academy

Class 6 Model Activity Task Bengali Part 7 October

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

বাংলা (প্রথম ভাষা)

ষষ্ঠ শ্রেণি

১. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও

১.১ ‘কোথাও বা চাষির ঘরের বউরা করে ক্ষেত্ৰব্রত।

— ‘ক্ষেত্ৰব্ৰত’ কীভাবে পালিত হয় ‘মরশুমের দিনে’ গদ্যাংশ অনুসরণে লেখো।

উত্তর: প্রশ্নে উদ্ধৃত অংশটি সুভাষ মুখোপাধ্যায় রচিত ‘মরশুমের দিনে’ রচনাংশ থেকে নেওয়া হয়েছে।

        এই রচনাংশে বলা হয়েছে, চাষি ঘরের বউরা ক্ষেত্রব্রত পালন করে থাকে।

ব্রতপালনের নিয়ম: গ্রীষ্মকালে গ্রামবাংলায় জলের অভাব দেখা দেওয়ায় চাষি ঘরের বউরা এই ব্রত পালন করে। তারা বাড়ির কাছের খোলা জমিতে নিজেরা ঘট প্রতিষ্ঠা করে তার গায়ে সিঁদুর-পুত্তলি এঁকে ঘটের জলে আমের পল্লব ডুবিয়ে দেয়। এই ব্রতে বুড়িদের মধ্যেই কেউ হয় মূলব্রতী। হাতে ফুল আর দূর্বা নিয়ে ব্রতীর দল মূলব্রতীর মুখ থেকে ব্রতের কথা শোনে। সন্ধেবেলায় উলু দিয়ে ব্রত শেষ হয়। তারপর মাঠে বসেই ব্রতীর দল চিঁড়ে-গুড়-মুড়ি-খই আর দই দিয়ে ফলার খায়।

১.২ দিবসরাত্রি নূতন যাত্রী / নিত্য নাটের খেলা।’ –উদ্ধৃতাংশের তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো।

উত্তর: দুঃখবাদী কবি যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্তের লেখা হাট কবিতাটি একটি রূপকধর্মী কবিতা।

      সপ্তাহের কোনো নির্দিষ্ট দিনে গ্রাম থেকে একটু দূরে নির্দিষ্ট জায়গায় হাট বসে। সেখানে পণ্যদ্রব্য পরখ করে কেনাবেচা চলে। হাট এখানে মানবজীবনের প্রতীক।বাস্তবের হাটের ভাঙা-গড়ার মাধ্যমে কবি মূলত মানুষের জন্মমৃত্যুর কথা বলতে চেয়েছেন।আমাদের এই জীবনে বহু মানুষের সঙ্গে পরিচিতি, যোগাযোগ, লেনদেন ঘটে। জীবন ফুরালে সবাইকে বিদায় নিতে হয় । হাটের লোকেদের মতো এই পৃথিবীর মানুষরাও কেউ জীবনে সফল হয়, কেউ-বা বিফলতার মধ্যেই জীবন শেষ করে।

১.৩ ‘মূলত জ্যামিতিক আকার আশ্রিত বর্ণ সমাবেশেই রচিত হয় সাঁওতালি দেয়ালচিত্র।’— বক্তব্যটিকে ‘মাটির ঘরে দেয়ালচিত্র’ রচনায় লেখক কীভাবে ব্যাখ্যা করেছেন?

উত্তর: উদ্ধৃত অংশটি বিশিষ্ট সাহিত্যিক তপন কর রচিত ‘মাটির ঘরে দেয়ালচিত্র’ থেকে নেওয়া হয়েছে।

          মূলত জ্যামিতিক আকার-আশ্রিত বর্ণ সমাবেশেই সাঁওতালি দেয়ালচিত্র আঁকা হয়। এই চিত্রে যেমন রঙিন ভিতের মতো সমান্তরাল রেখা দেখা যায়, তেমনই থাকে চতুষ্কোণ ও ত্রিভুজের ছড়াছড়ি। চতুষ্কোণের মধ্যে চতুষ্কোণ বসিয়ে অথবা ত্রিভুজের মধ্যে ত্রিভুজ বসিয়ে নকশা তৈরি হয়। সাধারণত ঘরের চতুষ্পার্শ্ব ঘিরে থাকা মূল বেদিটি কালো রঙের হয়। তার সমান্তরালে বিঘতখানেক চওড়া গেরুয়া রঙের একটা রেখা টানা হয়। তার উপর সমান ছাড় দিয়ে আর একটি সমান্তরাল কালো রেখা টানা হয়। এর ওপরে সাদা, আকাশি, গেরুয়া বা হলদে রঙের রেখা দিয়ে চতুষ্কোণ বা ত্রিভুজগুলি আঁকা হয়। এগুলি পাশাপাশি এঁকে দেয়ালটিকে ভরাট করে তোলা হয়। সাধারণত দেয়ালচিত্রটি মাটি থেকে ছ-ফুট পর্যন্ত উচ্চতায় আঁকা হয়।

১.৪ ‘…সে বাড়ির সেই মানুষদের একটি বন্ধু ফাঁকি দিয়ে চলে গেল— সেই ঝড়ের রাতে।”― উদ্ধৃতিটির আলোকে ‘ফাঁকি’ গল্পের নামকরণের সার্থকতা প্রতিপন্ন করো।

উত্তর: আলোচ্য অংশ টি অন্যতম সাহিত্যিক রাজকিশোর পট্টনায়ক এর লেখা ‘ফাঁকি’ গল্প থেকে নেওয়া হয়েছে।

        বহু বছর আম গাছটি সমস্ত বাধাবিপত্তি কাটিয়ে অটুটভাবে দাঁড়িয়েছিল। কিন্তু সবার চোখের আড়ালে কবে যে উইপোকা তাকে কুরে কুরে খেয়ে দুর্বল করে দিয়েছে, তা পরিবারের কেউই বুঝতে পারেনি। তাই আষাঢ় মাসের রাতের এক তুমুল ঝড়ে গাছটি হঠাৎ করেই ভেঙে পড়ে। গাছটির সঙ্গে বাড়ির সকলের আত্মীয়তা গড়ে উঠেছিল। তাই এক ঝড়জলের রাত্রে তার মৃত্যুতে বাড়ির সকলের মনে হল এক পরম বন্ধু যেন হঠাৎ ফাঁকি দিয়ে চলে গেছে।

    পরম আত্মীয়ের এইরকম হঠাৎ চলে যাওয়াকে মানুষ বলে ফাঁকি দিয়ে চলে যাওয়া’। এক্ষেত্রেও আম গাছটির মৃত্যু গোপালদের কাছে পরিবারের কোনো প্রিয় সদস্য বা আত্মীয়ের ফাঁকি দিয়ে চলে যাওয়ার মতোই মনে হয়েছে। সেই কারণেই বলা যায়, গল্পটির নামকরণ যথাযথ ও সুপ্রযুক্ত হয়েছে।

১.৫ ‘খলখল করে হেসে উঠল জল, ঢেউ তুলে…’

—হেসে উঠে জল কী বলল ?

উত্তর: উপরোক্ত উক্তিটি বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক দক্ষিণারঞ্জন মিত্রমজুমদার এর লেখা ‘আশীর্বাদ’ গল্প থেকে নেওয়া হয়েছে ।

      তুমুল বর্ষায় বান ডেকেছে। চারিদিক ভেসে যাচ্ছে জলে। এমন অবস্থায় একটি পিঁপড়ে জলের তোড়ে ভেসে যেতে যেতে আশ্রয় নিয়েছে একটি ঘাসের পাতার নীচে।তার কথোপকথন চলছিল ঘাসের পাতার সঙ্গে। পিঁপড়েটি প্রকৃতির ওপর অসন্তুষ্ট। নিজের জীবনের অসহায়তার কথা ভেবে সে হতাশ হয়ে পড়ে। সে প্রতি মুহূর্তে মৃত্যুর ভয় পায়। ঘাসের পাতাটি তাকে অভয় দিতে থাকে।সেই মুহূর্তে বয়ে চলা জলও বলে ওঠে যে, বর্ষায় সে ঘাসকে ডুবিয়ে দিলেও শরৎকালে সেই ঘাসেরাই আবার কাশফুল হয়ে ফুটে ওঠে। সব দুর্যোগই তাদের প্রাণশক্তির কাছে হার মানে।

২. নির্দেশ অনুসারে নীচের ব্যাকরণগত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

২.১ নীচের শব্দবিভক্তিগুলির প্রতিটির আগে একটি করে উপযুক্ত শব্দ জুড়ে পদ বানাও :

২.১.১ দিগ :- তাহাদিগ 
২.১.২ রা :- বাচ্চারা 
২.১.৩ গুলি :- দিনগুলি 

২.২ নীচের শব্দগুলির আগে দুটি করে উপসর্গ বসিয়ে আলাদা আলাদা শব্দ তৈরি করো :

২.২.১ দেশ :- প্রদেশ, বিদেশ 
২.২.২ কাশ :- অবকাশ, বিকাশ 

 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 6 Model Activity Task English Part 7 October

MODEL ACTIVITY TASK
CLASS – VI
ENGLISH

Read the following passage and answer the questions that follow:

Feeling restless, I left the viewing room and glided down the long passage to the centre of the space station. I could see my father there surrounded by reporters. I came back to the view-room which was empty. I looked out into space. My Moon my home appeared very small now. At home, kids would be getting ready for the party. There’s always been a party at sunrise. The Sun rose only 12 or 13 times a year so it was something special for us. The sunlight crept slowly across the surface of the Moon until finally night was gone.

A. Complete the following sentences with information from the passage:

(i) The narrator left the viewing-room because ____________________________ .

Ans: He was feeling restless.

(ii) He could not talk to his father as _________________________________.

Ans: his father was surrounded by reporters.

(iii) Sunlight crept on the Moon’s surface until __________________________ .

Ans: the night was gone finally.

B. Answer the following questions:

(i) How did the Moon appear to the narrator?

Ans: The moon appeared very small to the narrator.

(ii) When would there be a party in Moon?

Ans: The sun rose only 12 or 13 times a year in moon.So at every sunrise, there would be a party in moon.

(iii) Why was the sunrise special for the residents of Moon?

Ans: In the moon,the Sun rose only 12 or 13 times a year so it was something special for the residents of Moon.

2. Do as directed:

(i) Will you please shut the door? (Replace the underlined word with its antonym)

Ans : Will you please open the door?

(ii) We shall go out for vacation soon. (Identify the type of Adverb used in the sentence)

Ans : Adverbs of time.

(iii) The earnings for this quarter ________ (exceed/exceeds) expectations. (Choose the correct option)

Ans : exceeds.

(iv) Our guest is ________ European. (Fill in the blanks with an indefinite article)

Ans : an.

(v) May God bless you. (Identify the type of sentence)

Ans : optative.

3. Develop a story (in about 60 words) using the following outline. Add a suitable title to your story:

Outline: dog with piece of meat in mouth-crosses a river bridge-sees his shadow-thinks another dog, barks meat falls into the river

Ans :

           The Dog and The Shadow

Once upon a time, a greedy dog snatched a piece of meat from a nearby house and began crossing the river over a narrow bridge with it in his mouth. He noticed another dog carrying a piece of meat in its mouth as he looked down into the river.The dog stopped on the bridge and looked down very carefully. He became greedy to get the other piece of meat. In fact, he saw his own image in the clear water of the river and took it for another dog. So, he howled at the image. Instantly the piece of meat fell into the water. The dog jumped following the piece of meat that was dropping. Alas! he failed to get it. He somehow swam to the other side of the river and stayed hungry.

Moral: Grasp all, lose all.

 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 6 Model Activity Task History Part 7 October

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

ষষ্ঠ শ্রেণি

ইতিহাস

‘ক’ স্তম্ভের সঙ্গে ‘খ’ স্তম্ভ মেলাও :

ক’ স্তম্ভ

খ’ স্তম্ভ

১.১ আর্যসত্য

(ক) চতুর্থ বৌদ্ধ সংগীতি

১.২ বসুমিত্র

(খ) পার্শ্বনাথ

১.৩ চতুর্যামব্রত

(গ) মহাবীর

১.৪ পঞ্চমহাব্রত

(ঘ) গৌতম বুদ্ধ

উত্তর :

স্তম্ভ

স্তম্ভ

১.১ আর্যসত্য

(ঘ) গৌতম বুদ্ধ

১.২ বসুমিত্র

(ক) চতুর্থ বৌদ্ধ সংগীতি

১.৩ চতুর্যামব্রত

(খ) পার্শ্বনাথ

১.৪ পঞ্চমহাব্রত

(গ) মহাবীর

২. শূন্যস্থান পূরণ করো:

২.১ বেশিরভাগ মহাজনপদ গড়ে উঠেছিল _____________ উপত্যকাকে কেন্দ্র করে।

উত্তর : গঙ্গা-যমুনার 

২.২ মগধের রাজধানী ছিল ________________ ।

উত্তর : পাটলিপুত্র 

২.৩ সর্বজ্ঞানী হওয়ার পর মহাবীর পরিচিত হন ______________ নামে।

উত্তর : কেবলিন

২.৪ প্রথম বৌদ্ধ সংগীতির আয়োজন করা হয়েছিল ____________ মৃত্যুর পর।

উত্তর : গৌতম বুদ্ধের 

৩. দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও :

৩.১ ‘অষ্টাঙ্গিক মার্গ’ কী?

উত্তর : দুঃখ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য গৌতম বুদ্ধ আটটি উপায়ের কথা বলেছিলেন। সেই আটটি উপায়কে একসঙ্গে বলা হয় অষ্টাঙ্গিক মার্গ। মার্গ মানে পথ। আটটি পথকে তাই একসঙ্গে অষ্টাঙ্গিক মার্গ বলা হয়।

     অষ্টাঙ্গিক মার্গ গুলি হলো – সৎ বাক্য, সৎ চেষ্টা, সৎ শ্রম, সৎ সংকল্প, সৎ দৃষ্টি, সৎ জীবিকা, সম্যক সমাধি, সৎ শ্রবন।

৩.২ ‘মজঝিম পন্থা’ বলতে কী বোঝো?

উত্তর :  মজঝিম পতিপদা বা মধ্যপন্থা হলো গৌতম বুদ্ধের এক উপলব্ধি বোধ।গৌতম বুদ্ধ মনে করতেন কঠোর তপস্যা নির্বাণ বা মুক্তি লাভের উপায় নয়। আবার চূড়ান্ত ভোগ-বিলাসেও মুক্তির খোঁজ পাওয়া যায় না।তাই তিনি মজঝিম পতিপদা বা মধ্যপন্থার কথা বলেছিলেন।

৩.৩ কোন সাহিত্য থেকে জনপদ-মহাজনপদ সম্পর্কে জানা যায়?

উত্তর : জৈন ও বৌদ্ধ সাহিত্য থেকে জনপদ-মহাজনপদ সম্পর্কে জানা যায়।

৪. চার-পাঁচটি বাক্যে উত্তর দাও :

৪.১ মহাজনপদ গড়ে উঠেছিল কীভাবে?

উত্তর : খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকের গোড়ার দিকে ভারতীয় উপমহাদেশে অনেকগুলি জনপদের কথা জানা যায়। সেসব জনপদগুলি অনেক সময়েই পরিচিত হতো সেখানকার শাসক বংশের নামে। ঐ জনপদগুলিকে ভিত্তি করেই পরের দিকে বড়ো বড়ো রাজ্য তৈরি হয়েছিল।এরপর একেকটা জনপদের ক্ষমতা ক্রমে বাড়তে থাকে। সেখানকার শাসকরা যুদ্ধ করে নিজেদের রাজ্যের সীমানা বাড়াতে থাকেন। ছোটো ছোটো জনপদগুলির কয়েকটি পরিণত হয় বড়ো রাজ্যে। এই বড়ো রাজ্যগুলিই মহাজনপদ বলে পরিচিত হয়। জনপদের থেকে যা আয়তন ও ক্ষমতায় বড়ো তাই মহাজনপদ।

৪.২ বৌদ্ধ ও জৈন ধর্মের মধ্যে দুটি মিল ও দুটি অমিল লেখো।

উত্তর : 

  মিল:-

উদ্ভবগত: ব্রাহ্মণ্যধর্মের অনাচারের প্রতিবাদে বৌদ্ধ ও জৈন—এই দুই ধর্মের উত্থান ঘটে। এ কারণেই এদের প্রতিবাদী ধর্ম হিসেবে অভিহিত করা হয়। 

মতবাদগত: উভয় ধর্মই অহিংসার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে। বৌদ্ধ ও জৈন উভয় ধর্মই জন্মান্তরবাদে বিশ্বাসী ছিল। যাগযজ্ঞ, পশুবলি ও বর্ণাশ্রম প্রথার বিরােধী ছিল উভয় ধর্মই।

  অমিল:-

মােক্ষ বা নির্বাণ প্রসঙ্গে: বৌদ্ধধর্মে ভােগ ও ত্যাগের মধ্যবর্তী পথ (মঝঝিম পন্থা) অবলম্বনের কথাবলা হয়েছে। জৈনধর্মে কঠোর কৃষ্ছসাধন, ত্যাগ এর পাশাপাশি উপবাসের ওপরও গুরুত্ব আরােপ করা হয়েছে।

অহিংসা প্রসঙ্গে: গৌতম বুদ্ধ কেবলমাত্র জীব বা প্রাণী হত্যারই বিরােধী ছিলেন। জৈনধর্মে কঠোর অহিংসনীতির কথা বলা হয়েছে। জৈনরা জীবকুলের পাশাপাশি জড়বস্তুতেও প্রাণের অস্তিত্বে বিশ্বাসী ছিলেন।

 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 6 Model Activity Task Geography Part 7 October

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক

ষষ্ঠ শ্রেণি

পরিবেশ ও ভূগোল

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :

১.১ ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করো—

ক) এক্সোস্মিয়ার – মেঘের উপস্থিতি

খ) ভূত্বক – পরিচলন স্রোত

গ) সমুদ্রের জল- পৃথিবীর মোট জলের তিন শতাংশ

ঘ) বিশ্ব উন্নায়ন – মরুভূমির প্রসার

উত্তর : ঘ) বিশ্ব উন্নায়ন – মরুভূমির প্রসার

১.২ আন্টার্কটিকার স্থায়ী বাসিন্দা পেঙ্গুইনের প্রধান খাদ্য হলো—

ক) সীল

খ) তিমি

গ) ক্রিল

ঘ) অ্যালবাট্রস

উত্তর : গ) ক্রিল

১.৩ সূর্যরশ্মির যে অংশ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলকে উত্তপ্ত না করে সরাসরি মহাশূন্যে ফিরে যায় তাকে বলে—

ক) পার্থিব বিকিরণ

খ) কার্যকরী সৌর বিকিরণ

গ) ইনসোলেশন

ঘ) অ্যালবেডো

উত্তর : ঘ) অ্যালবেডো

১.৪ ক্রান্তীয় পর্ণমোচী উদ্ভিদের একটি উদাহরণ হলো—

ক) ফার

খ) ক্যাকটাস

গ) পলাশ

ঘ) গরান

উত্তর : গ) পলাশ

২. একটি বা দুটি শব্দে উত্তর দাও :

২.১ পৃথিবীর বাইরের শক্ত আবরণ কী নামে পরিচিত?

উত্তর : পৃথিবীর বাইরের শক্ত আবরণ ভূত্বক নামে পরিচিত ।

২.২ ‘আন্টার্কটিকা’ শব্দটির অর্থ কী?

উত্তর : ‘আন্টার্কটিকা’ শব্দটির অর্থ হলো ‘উত্তরের বিপরীত’ ।

২.৩ কোন গোলার্ধে সমোষ্ণরেখাগুলি পরস্পর থেকে দূরে অবস্থান করে?

উত্তর : দক্ষিন গোলার্ধে সমোষ্ণরেখাগুলি পরস্পর থেকে দূরে অবস্থান করে।

২.৪ ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু কোনটি?

উত্তর : ভারতের মূল ভূখণ্ডের দক্ষিণতম বিন্দু ‘কন্যাকুমারিকা’।

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :

৩.১ ‘বায়ুমণ্ডলই পৃথিবীতে জীবনধারণের অনুকূল তাপমাত্রা বজায় রাখে – বক্তব্যটির যথার্থতা বিচার করো।

উত্তর : সূর্যের তাপে পৃথিবী উত্তপ্ত হয় আর দিন ও রাত মিলিয়ে ঐ তাপ ধীরে ধীরে বেরিয়ে যায়। বায়ুমণ্ডল না থাকলে সূর্যাস্তের পর হঠাৎ ভীষণ ঠান্ডা আর সূর্যোদয়ের পর হঠাৎ প্রবল গরম হয়ে যেত পৃথিবী।ফলে জীবজগৎ কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতো । বায়ুমণ্ডলের জন্যই পৃথিবীতে জীবনধারণের অনুকূল তাপমাত্রা বজায় থাকে।

৩.২ আন্টার্কটিকার জলবায়ুর দুটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো।

উত্তর : আন্টার্কটিকার জলবায়ুর দুটি বৈশিষ্ট্য হলো –

১.এই মহাদেশ পৃথিবীর শীতলতম অঞ্চল। সারাবছরই হিমশীতল আবহাওয়া, কনকনে ঠান্ডা বাতাস আর তুষারঝড় চলে।

২.শীতকালে তাপমাত্রা ৪০° সেন্টিগ্রেড থেকে-৭৫° সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত নেমে যায়। এই মহাদেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮৯.২° সেন্টিগ্রেড।

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৪.১ পৃথিবীর তাপমণ্ডলের একটি চিহ্নিত চিত্র অঙ্কন করো।

উত্তর :

tapmondal 2

 

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৫.১ কী কী উপায়ে মাটি সংরক্ষণ করা যেতে পারে বলে তুমি মনে করো?

উত্তর : মৃত্তিকা সংরক্ষণের উপায় গুলি হলো নিম্নরূপ-

বনভূমি সৃষ্টি – উদ্ভিদের শিকড় এক দিকে যেমন মৃত্তিকাকে শক্ত করে আঁকড়ে ধরে থাকে, অন্যদিকে বৃষ্টির ফোঁটার আঘাত থেকে মৃত্তিকাকে রক্ষা করে মৃত্তিকা ক্ষয় নিবারন করে।এসব কারণে বনভূমি নষ্ট না করে প্রয়োজন মতো নতুন বনভূমি সৃষ্টি করে মৃত্তিকা ক্ষয় প্রতিহত করতে সক্ষম হয়।

শস্যাবর্তন – একই জমিতে পর্যায় ক্রমে বিভিন্ন ফসলের চাষ করলে একদিকে যেমন মৃত্তিকার উর্বরতা বজায় থাকে, ঠিক তেমনি সারা বছর ধরে ফসল উৎপাদন করা হয় বলে জমি কখনো খালি পড়ে থাকে না, তাই বৃষ্টি ও বায়ুর দ্বারা মৃত্তিকা ক্ষয়ের পরিমান কমে যায়।

পশুচারন নিয়ন্ত্রন – পশুচারন নিয়ন্ত্রনের মাধ্যমে মৃত্তিকা ক্ষয় কমানো সম্ভব। কারণ পশুচারন কম হলে মৃত্তিকায় তৃণ ও অন্যান্য উদ্ভিদের আবরন বেড়ে যায়, পশুর পায়ের আঘাতে মৃত্তিকা আলগা হওয়ার পরিমান হ্রাস পায়। এভাবে নিয়ন্ত্রিত পশুচারন মৃত্তিকা ক্ষয় কে নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করে।

নদীর পাড় ভাঙন রোধ – নদীর পাড় ভাঙন প্রতিরোধ করার জন্য নদীর পাড় বরাবর কংক্রিটের বাঁধ নির্মান, বোল্ডার দ্বারা পাড় বাঁধন এবং অনেক সময় বালির বস্তা ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

ঝুমচাষ নিষিদ্ধ করন – পাহাড়ি অঞ্চলে বন জঙ্গল কেটে পরিষ্কার করে প্রাচীন পদ্ধতিতে চাষবাস কে ঝুমচাষ বলে। এই ক্ষেত্রে বনভূমি কেটে চাষ করা হয় বলে ভূমি উন্মুক্ত হয়ে বায়ু ও জলপ্রবাহ দ্বারা ক্ষয় হয়ে যায়। তাই যে সব অঞ্চলে এই ঝুমচাষ করা হয় তা বন্ধ করতে পারলে ভূমিক্ষয়ের পরিমান হ্রাস পায়।

ALL Class ALL Model Activities Click Here
 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
 Class 6 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
 Class 7 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here

 Class 7 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)

Click Here
 Class 8 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
 Class 8 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
Class 9 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
Class 9 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
Class 10 Model Activity Task Part 7 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
Class 10 Model Activity Task Part 7 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here

Leave a Comment

Your email address will not be published.