StudyWithGenius

Class 6 Model Activity Task Part 8 November New 2021 | ষষ্ঠ শ্রেণী মডেল অ্যাক্টিভিটি | Bengali, English, History, Geography

Class 6 Model Activity Task Part 8 November New 2021 | Combined Model Activity Task

class 6 model activity task part 8 answer, class 6 model activity task part 8 bengali, class 6 model activity task november, class 6 model activity task part 8 chemistry, class 6 model activity task part 8 download, class 6 model activity task part 8 english, class 6 model activity task part 8 exercise, class 6 model activity task part 8 full, class 6 model activity task part 8 geography, class 6 model activity task part 8 mathematics, class 6 model activity task part 8 maths, class 6 model activity task part 8 notes, class 6 model activity task part 8 of science, class 6 model activity task part 8 online, class 6 model activity task part 8 question answer, class 6 model activity task part 8 solution, class 6 model activity task part 8 wbbse, class 6 model activity task part 8 west bengal board, class 6 model activity task part 8 with answers, class 6 combined model activity task answer, class 6 combined model activity task bengali, class 6 combined model activity task download, class 6 combined model activity task english, class 6 combined model activity task full, class 6 combined model activity task geography, class 6 combined model activity task mathematics, class 6 combined model activity task maths, class 6 combined model activity task science, class 6 combined model activity task online, class 6 combined model activity task

Class 6 Model Activity Task Part 8 November / Class 6 Combined Model Activity Task হল ২০২১ সালের জুলাই থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত তোমাদের যে সমস্ত Model Activity Task দেওয়া হয়েছিল সেখান থেকে বাছাই করা Important কিছু প্রশ্ন ।

এখানে আমরা Class 6 Model Activity Task Part 8 November / Class 6 Combined Model Activity Task এর সমস্ত প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে চলে এসেছি । ২০২১ সালের এটাই সর্বশেষ Model Activity Task। এই অ্যাক্টিভিটি টাস্কে 50 নম্বরের প্রশ্ন দেওয়া রয়েছে যেগুলো তোমাদের সমাধান করে বিদ্যালয়ে জমা দিতে বলা হয়েছে । এখানে দেওয়া প্রশ্ন গুলি খুবই গুরুত্বপূর্ণ । এর উপর ভিত্তি করেই সম্ভবত তোমরা পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হবে । সুতরাং, খুবই মন দিয়ে তোমরা নিচের প্রশ্নোত্তর গুলি লিখবে ।

class 6 model activity task part 8
SWG Academy

Class 6 Model Activity Task Bengali Part 8 November

Class 6 Combined Model Activity Task

বাংলা (প্রথম ভাষা)

ষষ্ঠ শ্রেণি

১. ঠিক উত্তরটি বেছে নিয়ে লেখো : 

১.১ ‘ভরদুপুরে’ কবিতায় ‘শুকনো খড়ের আঁটি’ রয়েছে 

( ক ) অশ্বত্থ গাছের নীচে

( খ ) মাঠে 

( গ ) গোলাঘরে

( ঘ ) নৌকার খোলে

উত্তর: ( ঘ ) নৌকার খোলে

১.২ ‘তাকে আসতে বলবে কাল।’ — আসতে বলা হয়েছে

( ক ) শংকর সেনাপতিকে 

( খ ) অভিমুন্য সেনাপতিকে 

( গ ) বিভীষণ দাস কে

( ঘ ) পঞ্চানন অপেরার মালিক কে

উত্তর: ( খ ) অভিমুন্য সেনাপতিকে 

 ১.৩ ‘আকাশে নয়ন তুলে’ দাঁড়িয়ে রয়েছে

 ( ক ) বনু পাহাড়

 ( খ ) মরুভূমি 

 ( গ ) প্রভাত সূর্য

 ( ঘ ) পাইন গাছ

উত্তর: ( ঘ ) পাইন গাছ

১.৪ ‘যেতে পারি কিন্তু কেন যাব’ কাব্যগ্রন্থটির রচয়িতা 

( ক ) নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী 

( খ ) অরুণ মিত্র 

(গ) শক্তি চট্টোপাধ্যায়

( ঘ ) অমিয় চক্রবর্তী 

উত্তর: (গ) শক্তি চট্টোপাধ্যায়

১.৫ পূর্ববঙ্গের মাহুতের ভাষায় ‘মাইল’ শব্দের অর্থ 

( ক ) পিছনে যাও 

( খ ) সাবধান 

( গ ) বস

( ঘ ) কাত হও  

উত্তর: ( খ ) সাবধান 

২. খুব সংক্ষেপে নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও : 

২.১ ‘ ও তো পথিকজনের ছাতা ’ – পথিকজনের ছাতা কোন্‌টি ? 

উত্তর:  ‘ভরদুপুরে’  কবিতাটিতে পথিকজনের ছাতা বলতে একটি অশথ গাছ কে বোঝানো হয়েছে ।

২.২ “ এখানে বাতাসের ভিতর সবসময় ভিজে জলের ঝাপটা থাকে । ‘ – কেন এমনটি হয় ?

উত্তর:  শংকর – দের বিদ্যালয়টি বঙ্গোপসাগরের পাঁচ – সাত মাইলের মধ্যেই অবস্থিত । তাই পাগলা বাতাসের ভিতর সবসময় ঢেউয়ের ভিজে জলের ঝাপটা উড়ে আসে ।

 ২.৩ ‘ মন – ভালো – করা ’ কবিতায় কবি রোদ্দুরকে কীসের সঙ্গে তুলনা করেছেন ? 

উত্তর:  ` মন ভালো করা ‘ কবিতায় কবি রোেদ্দুরকে- একটি মাছরাঙা পাখির শরীরের সঙ্গে তুলনা করেছেন ।

২.৪ আমি কথা দিয়ে এসেছি ’ – কথক কোন কথা দিয়ে এসেছেন ?

উত্তর:  কথক অরুণ মিত্র বৃষ্টির দিনে আবার ভিজে ঘাসের উপর দিয়ে হেঁটে ঘাসফড়িং টির সাথে দেখা করতে আসবে ; এই কথা দিয়ে এসেছেন ।

 ২.৫ ‘ ভাদুলি ’ ব্ৰত কখন উদযাপিত হয় ?

উত্তর: বর্ষাকালের শেষের দিকে মেয়েরা ভাদুলি ব্রত উদযাপন করে ।

 ২.৬ সন্ধ্যায় হাটের চিত্রটি কেমন ? – কে এমন স্বপ্ন দেখে ? কেন সে এমন স্বপ্ন দেখে ?

উত্তর:  সন্ধ্যায় হাটের চিত্রটি দিনের বেলার জনপূর্ন হাটের থেকে সম্পূর্ণ বিপরীত । সন্ধার হাট প্রদীপহীন অন্ধকার , নিশ্চুপ- নির্জনতায় ভরা ।

 ২.৭ কোন্ তিথিতে রাঢ়বঙ্গের কৃষিজীবী সমাজের প্রাচীন উৎসব গো – বন্দনা , অলক্ষ্মী বিদায় , কাঁড়াখুঁটা , গোরুখুটা প্রভৃতি পালিত হয় ?

উত্তর:  কালীপূজা অর্থাৎ কার্তিকের অমাবস্যা তিথিতে রাঢ়বঙ্গের কৃষিজীবি সমাজের প্রাচীন উৎসব গো – বন্দনা , অলক্ষী বিদায় , কাঁড়াখুটা , গোরুখুঁটা প্রভৃতি পালিত হয় ।

২.৮ ‘ কেমন যেন চেনা লাগে ব্যস্ত মধুর চলা – কবি কার চলার কথা বলেছেন ?

উত্তর:  কবি অমিয় চক্রবর্তী তাঁর পিঁপড়ে কবিতায় ছোট ছোট পিঁপড়েদের ব্যস্তভাবে সারি দিয়ে চলার কথা বলেছেন ।

 ২.৯ ‘ সে বাড়ির নিশানা হয়েছে আমগাছটি’— ‘ফাঁকি’ গল্পে গোপালবাবু কীভাবে তার বাড়ির ঠিকানা জানাতেন ? 

উত্তর:  গোপাল বাবুকে কেউ তার বাড়ির ঠিকানা জিজ্ঞেস করলে তিনি বলতেন– কাঠজোড়ি নদীর ধার বরাবর পুরীঘাট পুলিশের ফাঁড়ির পশ্চিমদিকে যেখানে পাঁচিলের মধ্যে আমগাছ দেখবেন- সেইখানে আমাদের বাড়ি ।

২.১০ ‘ তুমি যে কাজের লোক ভাই ! ওইটেই আসল ’ । কে , কাকে , কখন একথা বলেছিল ? 

উত্তর:  উদ্ধৃত উক্তিটি ঘাসের পাতা –পিঁপড়েকে বলেছিল । বৃষ্টির জলে ভেসে যাওয়া থেকে বাঁচানোর জন্য পিঁপড়েটি ঘাসের পাতাকে ধন্যবাদ জানালে সেই সময় ঘাসের পাতা এই উক্তিটি করেছিল ।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

৩. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর নিজের ভাষায় লেখো :

 ৩.১ ‘ দাঁড়ায়ে রয়েছে পামগাছ মরুতটে । ’  কে এমন স্বপ্ন দেখে ? কেন সে এমন স্বপ্ন দেখে ?

উত্তর:  দাঁড়ায়ে রয়েছে পামগাছ মরুতটে ‘ পাইন গাছ এমন স্বপ্ন দেখে । 

• পাইন গাছ শীতল জলবায়ুতে জন্মায় । সারা জীবন তাকে প্রবল ঠান্ডা সহ্য করতে হয় । উষ্ণতার অপ্রাপ্তির কারণেই পাইন গাছ তপ্ত বালুকারাশির মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকা পামগাছের স্বপ্ন দেখে ।

৩.২ ‘ … তাই তারা স্বভাবতই নীরব । ‘ – কাদের কথা বলা হয়েছে ? তারা নীরব কেন ?

উত্তর:  এই উদ্ধৃতাংশটিতে বন্যপ্রাণীদের নীরব থাকার কথা বলা হয়েছে ।

    জঙ্গলে শিকারী প্রাণীরা অসতর্ক হলে তারাও শিকারে পরিণত হয় । অযথা আওয়াজ করে শত্রুদের তারা আমন্ত্রণ করে না । নিজেদের প্রাণ বাঁচানোর জন্যই তারা স্বভাবত নীরব থাকে ।

৩.৩ ‘ এরা বাসা তৈরি করবার জন্য উপযুক্ত স্থান খুঁজতে বের হয় । ‘ – উপযুক্ত স্থান খুঁজে নেওয়ার কৌশলটি ‘ কুমোরে – পোকার বাসাবাড়ি ‘ রচনাংশ অনুসরণে লেখো । 

উত্তর:  কুমোরে পোকারা ডিম পাড়ার সময় হলে বাসা তৈরীর জন্য উপযুক্ত স্থান খোঁজে । কোন স্থান পছন্দ হলে তার আশেপাশে বারবার ঘুরে তারা দেখে নেয় স্থানটি । এরপর খানিক দূর উড়ে গিয়ে আবার ফিরে আসে , স্থানটিকে বিশেষভাবে পরীক্ষা করে নেয় । দুই- তিনবার এভাবে পরীক্ষা করার পর কোন সমস্যা না থাকলে তারা বাসা বানানোর জন্য কাদামাটির সন্ধানে বের হয় ।

৩.৪ ‘ ধানকাটার পর একেবারে আলাদা দৃশ্য । ‘ – ‘ মরশুমের দিনে ’ গদ্যাংশ অনুসরণে সেই দৃশ্য বর্ণনা করো । 

উত্তর:  লেখক সুভাষ মুখোপাধ্যায় তাঁর ‘ মরশুমের দিনে ‘ গদ্যাংশটিতে ধান কেটে নেওয়ার পর প্রকৃতির রুক্ষ- শুষ্ক রূপের বর্ণনা করেছেন । বসু প্রকৃতির সুন্দর রূপ পরিবর্তিত হয়ে সেসময় চারিদিকে শুষ্ক – রুক্ষ , কঙ্কালসার মাটি দেখা যায় । নদী পুকুর খাল বিল শুকিয়ে যায় । গাছের পাতা থাকে না।জলের জন্য চারিদিকে হাহাকার পড়ে যায় ।

৩.৫ দিন ও রাতের পটভূমিতে হাটের চিত্র ‘ হাট ’ কবিতায় কীভাবে বিবৃত হয়েছে তা আলোচনা করো ।

উত্তর:  দিন ও রাতের পটভূমিতে হাটের চিত্র কবি যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত ভিন্নভাবে দেখিয়েছেন তাঁর কবিতায় । দিনের হাট কোলাহলমুখর । সেখানে নানা মানুষ নানা সময়ে বেচাকেনা করতে হাজির হয় । 

      অপরদিকে রাতের পটভূমিতে আকাঁ হাট নিঃস্ব , বিষন্ন মনে নির্জনতার মাঝে- রাত্রির অন্ধকারে ডুবে থাকে ।

 ৩.৬ ‘ মাটির ঘরে দেয়ালচিত্র ‘ রচনায় সাঁওতালি দেয়ালচিত্রের বিশিষ্টতা কীভাবে ফুটে উঠেছে ?

উত্তর:  জ্যামিতির আকারকে আশ্রয় করে এবং বিভিন্ন রং দিয়ে রচিত হয় সাঁওতালি দেয়ালচিত্রগুলি । মাটির ঘরে দেয়ালচিত্র ‘ রচনায় আমরা দেখতে পাই- তাদের দেয়ালচিত্র গুলিতে সমান্তরাল রেখা চতুষ্কোন ও ত্রিভুজের ছড়াছড়ি । তারা এই জ্যামিতিক আঁকারগুলি এঁকে তার উপরে সাদা , আকাশি , গেরুয়া বা হলুদ রং দিয়ে সেগুলো সাজিয়ে তোলে । জ্যামিতিক আকার ও রঙের সংমিশ্রণ- এই হল সাঁওতালদের দেয়ালচিত্রের বিশিষ্টতা ।

 ৩.৭ ‘ পিঁপড়ে ’ কবিতায় পতঙ্গটির প্রতি কবির গভীর ভালোবাসার প্রকাশ ঘটেছে । আলোচনা করো ।

উত্তর: ‘ পিঁপড়ে কবিতায় পতঙ্গটির প্রতি কবি অমীয় চক্রবর্তীর গভীর ভালোবাসা প্রকাশ পেয়েছে।কবি সারিবদ্ধ ছোট পিঁপড়েদের চলাফেরা মনোযোগ দিয়ে লক্ষ করেছেন তবে তিনি তাদের চলাফেরায় বাধা দিতে চাননি ; কারন তিনি চান না তাদের কষ্ট দিতে । তাদের চলাফেরার মধ্যে কবি জীবনের চঞ্চল ভাবটুকুকে অনুভব করেছেন ।

 ৩.৮ ‘ ফাঁকি ’ গল্পের অন্যতম প্রধান চরিত্র একটি নিরীহ , নিরপরাধ আমগাছ ।’— উদ্ধৃতিটি কতদূর সমর্থনযোগ্য ?

উত্তর:  ‘ ফাঁকি ‘ গল্পে একটি আমগাছকে লেখক প্রধান চরিত্র হিসেবে পাঠকের সামনে তুলে ধরেছেন । গোপালের বাবা বাড়ির কারো কথা না শুনে পাঁচিলের ধারে একটি আমগাছ লাগিয়েছিলেন । পরবর্তীকালে সেই গাছ সবার বড় প্রয়োজনের হয়ে ওঠে । সমস্ত গল্পটিতে অন্যান্য চরিত্রগুলি আমগাছটিকে কেন্দ্র করেই বিকশিত হয়েছে । ফল , পাতা , ডাল- ছায়া দেওয়া গাছটি হঠাৎ ঝড়ে ভেঙে গেলে সেটি ঘিরেও অন্যান্যদের মানসিক পরিবর্তন ঘটতে দেখা যায় । তাই বলাই যায় উদ্ধৃতিটি বিশেষভাবে সমর্থনযোগ্য ।

 ৩.৯ ‘ পৃথিবী সবারই হোক ।’— এই আশীৰ্বাণী ‘ আশীর্বাদ ‘ গল্পে কীভাবে ধ্বনিত হয়েছে ? 

উত্তর: ‘ আশীর্বাদ গল্পে বৃষ্টির জলে ভেসে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা পেয়ে পিঁপড়েটি পাতাকে বলেছিল – আমরা মাটির গর্তেই ভালো থাকি , এই গর্তের বাইরের পৃথিবীটি শুধুই তোমাদের । ভীত পিঁপড়েকে সাহস জুগিয়েছিল পাতা , বৃষ্টি ও জল । তাদের কথোপকথনের মধ্যেই বৃষ্টি শেষ হয়ে আকাশে সূর্য দেখা যায় । তাদের কথোপকথন ও সূর্যের আগমন আশীর্বাদ গল্পে এই পৃথিবী সবারই হোক — এই আশীর্বাণী ধ্বনিত করেছে ।

৩.১০ ´ … এমন অভূতপূর্ব অবস্থায় আমায় পড়তে হবে ভাবিনি ‘ । – গল্পকথক কোন অবস্থায় পড়েছিলেন ?

উত্তর:  ‘ গল্পকথক শিবরাম চক্রবর্তী একবার সাইকেলে হুড়ুর দিকে যেতে যেতে টায়ার খারাপ হয়ে যাওয়ায় এক জনমানবহীন , জংলি স্থানে আটকে পড়েছিলেন । সন্ধ্যার মুহূর্তে এক চলন্ত বেবি অস্টিন গাড়িতে তাড়াতাড়ি উঠে বসেন লেখক । গন্তব্যস্থল বলতে বলতে ভয়ে তিনি চমকে ওঠেন , সামনে চালকের স্থানে কেউ নেই ! ইঞ্জিন বন্ধ কিন্তু গাড়ি চলছে ! তিনি ভাবলেন তিনি ভুতের খপ্পরে পড়েছেন । সেই শীতেও লেখকের ঘাম দেখা গিয়েছিল । গল্পকথক এই অবস্থারই সম্মুখীন হয়েছিলেন ।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

৪. নির্দেশ অনুসারে উত্তর দাও :

৪.১ বিসর্গসন্ধিতে বিসর্গ রূপান্তরিত হয়ে ‘ র্ ’ হচ্ছে – এমন দুটি উদাহরণ দাও ।

উত্তর:

নিঃ + দেশ = নির্দেশ । 

প্রাতঃ + আশ = প্রাতরাশ ।

৪.২ বিসর্গসন্ধিতে বিসর্গ লুপ্ত হয়ে আগের স্বরধ্বনিকে দীর্ঘ করছে – এমন দু’টি উদাহরণ দাও । 

উত্তর:

নিঃ + রস = নীরস ।

নিঃ + রোগ = নীরোগ ।

৪.৩ উদাহরণ দাও – জোড়বাঁধা সাধিত শব্দ , শব্দখণ্ড বা শব্দাংশ জুড়ে সাধিত শব্দ ।

উত্তর: জোড় বাঁধা সাধিত শব্দের উদাহরণ :: দেশ বিদেশ । শব্দ খন্ড বা সাধিত শব্দাংশ জুড়ে শব্দের উদাহরণ :- উপকার ।

৪.৪ সংখ্যাবাচক ও পূরণবাচক শব্দের পার্থক্য কোথায় ? 

উত্তর: সংখ্যাবাচক শব্দ বিশেষ্য বা সর্বনামের সংখ্যা বোঝায় ; কিন্তু পূরণবাচক শব্দ শুধুমাত্র সংখ্যাগত ক্রমিক অবস্থান বোঝায় ।

৪.৫ সন্ধি বিচ্ছেদ করো- নিরঙ্কুশ 

উত্তর: নিঃ + অঙ্কুশ = নিরঙ্কুশ l

৫. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

৫.১ শব্দজাত , অনুসর্গগুলিকে বাংলায় কয়টি শ্রেণিতে ভাগ করা যায় এবং কী কী ? 

উত্তর: শব্দজাত অনুসর্গগুলিকে বাংলায় তিনটি শ্রেণীতে ভাগ করা যায় ; সেগুলি হল – 

( 1 ) সংস্কৃত বা তৎসম অনুসর্গ 

( 2 ) তদ্ভব অনুসর্গ 

( 3 ) বিদেশি অনুসর্গ ।

৫.২ উপসর্গের আরেক নাম ‘ আদ্যপ্রত্যয় ’ কেন ? 

উত্তর:  প্রত্যয় শব্দটির অর্থ হলো মূল শব্দের সঙ্গে যে শব্দাংশ যুক্ত হয়ে নতুন নামপদ তৈরি করে , এবং মূল শব্দের প্রথমে বসে যে প্রত্যয় শব্দটির অর্থ বদলে দেয় তাকে আদ্যপ্রত্যয় বলে । উপসর্গের কাজটিও সেই রকম , তাই উপসর্গের আরেক নাম হল আদ্যপ্রত্যয় । 

৫.৩ ‘ ধাতুবিভক্তি ’ বলতে কী বোঝ ?

উত্তর: ক্রিয়াপদের মূল অংশকে ধাতু বলে । এই ধাতুর সঙ্গে বিভক্তি যুক্ত হয়ে নতুন শব্দ গড়ে উঠলে- সেটিকে আমরা ধাঁতু বিভক্তি বলি । যেমন : 

কর ( ধাতু ) + এ ( বিভক্তি ) = করে । ( ধাতু বিভক্তি )

 ৫.৪ শব্দযুগলের অর্থপার্থক্য দেখাও আশা / আসা , সর্গ / স্বর্গ 

উত্তর: 

আশা = ভরসা , আকাঙ্ক্ষা ।

আসা = আগমন করা । 

সর্গ = অধ্যায় , গ্রন্থের পরিচ্ছদ । 

স্বর্গ = দেবলোক ।

৫.৫ পদান্তর করো জগৎ , জটিল

উত্তর:

জগৎ = জাগতিক । 

জটিল = জটা ।

৬. অনধিক ১০০ শব্দে অনুচ্ছেদ রচনা করো : বাংলার উৎসব

উত্তর:

বাংলার উৎসব

ভূমিকা: ‘বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ’—বাঙালি জাতির উৎসবপ্রিয়তার কথা মাথায় রেখেই এই কথার প্রচলন হয়েছে।পরকে আপন করে নেওয়ার দুর্লভ গুণ বাঙালির সহজাত—আর উৎসব মানেই তো তাই, পারস্পরিক মিলন, ভাবের আদানপ্রদান। সেই কারণেই হয়তো বাঙালির জীবনে উৎসবের এই প্রাধান্য।দৈনন্দিন জীবনের একঘেয়েমি যখন মানুষকে ক্লান্ত করে তোলে, তখন সেই প্রাত্যহিকতায় এক ঝলক মুক্ত হাওয়া বয়ে আনে উৎসব। রোজকার রুটিন-বাঁধা জীবন থেকে ছাড়া পেয়ে সবাই তাই খুশিতে মেতে ওঠে। উৎসব তাই আমাদের মানসিক পরিচর্যা ঘটিয়ে আবার নতুন উদ্যমে কাজের জগতে ফিরিয়ে নিয়ে আসে।

বিভিন্ন উৎসব:  উৎসবপ্রিয় বাঙালির উৎসবের জন্য কোনো বিশেষ উপলক্ষ্য লাগে না। প্রাণের উৎসবে মাতোয়ারা বাঙালির উৎসবগুলিকে তাও কয়েকটি শ্রেণিতে ভাগ করা যায়—জাতীয় উৎসব, ঋতু উৎসব, ধর্মীয় উৎসব, সামাজিক ও পারিবারিক উৎসব।

             জাতীয় উৎসবগুলি হল—স্বাধীনতাদিবস, প্রজাতন্ত্র দিবস, মহাত্মা গান্ধির জন্মদিন। এই দিনগুলিতে সমগ্র ভারতবর্ষের সঙ্গে বাঙালিও উৎসবে মেতে ওঠে। এ ছাড়া আছে নেতাজির জন্মদিন, রবীন্দ্রজয়ন্তী ইত্যাদিও। এইগুলি বাঙালির নিজস্ব জাতীয় উৎসব।বাঙালির উৎসবের একটা বড়ো অংশ জুড়ে আছে বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব। তার মধ্যে যেমন আছে দুর্গাপুজো, কালীপুজো, জগদ্ধাত্রীপুজো, রাস উৎসব, রথযাত্রা, সরস্বতী পুজো, বাসন্তী পুজো, গুরুপূর্ণিমা, তেমনি আছে ইদ-উল-ফেতর, ইদুজ্জোহা, মহরম, বড়োদিন প্রভৃতি। সাম্প্রদায়িকতা কখনওই বাঙালির উৎসবমুখরতার মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে পারেনি। একজনের আনন্দ কীভাবে পাঁচজনের আনন্দ হয়ে উঠতে পারে তার সফল দৃষ্টান্ত বাঙালির সামাজিক উৎসবগুলি।বাংলা কৃষিপ্রধান দেশ—তাই নতুন ধান ঘরে তোলার উৎসব সে পালন করে নবান্ন উৎসবের মধ্য দিয়ে। তবে প্রাকৃতিক উৎসবগুলি অনেক সময়ই উপস্থাপিত হয় ধর্মীয় মোড়কে। যেমন—নতুন শস্য রোপণের উৎসবটির প্রতীক হিসেবে পালিত হয় ইতুলক্ষ্মীর ব্রত উৎসব। এ ছাড়া বসন্ত যখন চারদিক রাঙিয়ে তোলে তখন বাঙালিও নিজেদের রাঙিয়ে নেয় দোল উৎসবের মধ্য দিয়ে।

উপসংহার:- প্রতিদিনের গতানুগতিক জীবন থেকে মুক্তির স্বাদ এনে দেয় উৎসব। জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে একসাথে মেতে উঠতে পারি আমরা। বাঙালিদের জীবনে উৎসবের প্রয়োজন ও গুরুত্ব তাই অপরিসীম।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 6 Model Activity Task English Part 8 November

Class 6 Combined Model Activity Task
CLASS – VI
ENGLISH

SECTION A : READING COMPREHENSION 

1. Read the passage carefully and answer the questions that follow : 

He caught hold of a little net and dipped it into the water. He brought the little doll out. But she slipped out and fell on to the table banging her head. 

She began to cry. Up came a policeman doll and said fiercely, “What are you doing, catching the doll and making her bump her head like that?” 

“I was saving her from drowning!” said Tuffy. 

A. Tick the correct answer in the given boxes : 1 × 3 = 3 

(i) Tuffy saved the doll with a 

(a) stick (b) net (c) rope 

Ans : (b) net

(ii) The girl fell on the 

(a) floor (b) chair (c) table 

Ans : (c) table 

(iii) The policeman doll came when the girl 

(a) cried (b) fell (c) screamed

Ans : (a) cried

B. Fill in the chart with information from the given passage : 2 × 3 = 6 

CauseEffect
(i)Tuffy dipped the net into the water.
(ii) The little doll fell on to the table. 
(iii)The policeman doll talked fiercely.

Ans : 

Cause Effect
(i) He wanted to save the little doll from drowning. Tuffy dipped the net into the water.
(ii) The little doll fell on to the table. Her head banged to the table and she began to cry.
(iii) Tuffy caught the little doll in a net and fell on to the table banging her head. The policeman doll talked fiercely.

2. Read the following passage and answer the questions given below : 

Once upon a time there lived a boy, named Tatai. His father, Mr. Chowdhury, worked at the nearby coal-mine. Everyday Tatai used to watch the roadside jewellery shop hardly three yards away from his scratched window pane. It displayed a sparkling diamond necklace in a glass box. One day, a rich old lady stepped out of a cab, bought the beautiful necklace and left the glass box blank. The shopkeeper put some cheap crystal jewellery to fill in the emptiness of the box. 

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

A. Fill in the table with information from the passage : 1 × 3 = 3 

WhoDid what
(i) Tatai 
(ii) The rich old lady 
(iii) The shopkeeper 

Ans : 

Who Did what
(i) Tatai used to watch the roadside jewellery shop
(ii) The rich old lady stepped out of a cab, bought the beautiful necklace
(iii) The shopkeeper put some cheap crystal jewellery to fill in the emptiness of the box.

B. Answer the following questions : 2 × 2 = 4 

(i) What was the occupation of Tatai’s father? 

Ans : Tatai’s father worked at the nearby coal-mine.

(ii) How far was the jewellery shop from his house? 

Ans : he jewellery shop was hardly three yards away from Tatai’s house.

SECTION B : GRAMMAR AND VOCABULARY 

3. Fill in the blanks with verbs in agreement with the subject : 1 × 3 = 3 

(a) Pepperoni and cheese __________ great on a pizza. 

Ans : is .

(b) Neither she nor I __________ going to school. 

Ans : am.

(c) The Director and Producer of the film __________ giving an interview. 

Ans : is .

4. Identify the Imperative, Exclamatory, Optative and Interrogative sentences : 1 × 5 =5 

(a) Hurray! We have won the match. 

Ans : Exclamatory sentence

(b) What is your name? 

Ans : Interrogative sentence

(c) Neeraj Chopra won the gold medal in the Tokyo Olympics. 

Ans : Assertive sentence

(d) Open the door. 

Ans : Imperative sentence

(e) May God bless you. 

Ans : Optative sentence

5. Classify the underlined words of the given sentences in the correct columns : 1 × 6 = 6 

(i) Sugar is sweet.

(ii) This is my book.

(iii) You should carry an umbrella while going out.

(iv) My mother has long hair.

(v) Give me a glass of water.

Ans : 

Countable noun  Uncountable noun 
(i) Book (a) Sugar
(ii) Umbrella (b) Hair
(iii) Glass (c) Water

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

6. Add Prefixes to the words given below and make opposites : 1 × 5 = 5 

respect, comfortable, fortune, mature, literate 

Ans : 

respect => disrespect 

comfortable => uncomfortable

fortune => misfortune

mature => immature

literate => illiterate

 

7. Make sentences with the following words : 1 × 3 = 3 

despair, sturdy, drowning

Ans : 

despair – He gave up the struggle in despair.

sturdy – Ramesh is a sturdy boy.

drowning – I was saving her from drowning.

SECTION C : WRITING 

8. Suppose you had been to Murshidabad with your parents. Write a paragraph (in about 60 words) about your experience in the historical place. You may use the following hints : 6 

Hints : how you went there — mode of transport — historical sites you visited — description of what you saw — your feelings 

Ans : 

My visit to a historical place

Last December I went to Murshidabad with my parents. Father hired a taxi for that journey. Reaching Murshidabad we hired a cab-horse and visited some historical places, like, Jafar Ganze palace, Katra mosque, Motijhil palace,Khusbag. Hazarduari was a treat to the eyes, it is an art gallery and a museum. Here we saw the sword of Siraj, many royal articles and old paintings. I was simply thrilled. While returning the sweet and sad memories of Murshidabad began to flash upon my inward eye.

9. Develop a story (in about 60 words) using the following outlines. Add a suitable to your story : 6 

Outline : dog with piece of meat in mouth — crosses a river bridge — sees his shadow — thinks another dog, barks — meat falls into the river

Ans : 

The Dog and The Shadow

Once upon a time, a greedy dog snatched a piece of meat from a nearby house and began crossing the river over a narrow bridge with it in his mouth. He noticed another dog carrying a piece of meat in its mouth as he looked down into the river.The dog stopped on the bridge and looked down very carefully. He became greedy to get the other piece of meat. In fact, he saw his own image in the clear water of the river and took it for another dog. So, he howled at the image. Instantly the piece of meat fell into the water. The dog jumped following the piece of meat that was dropping. Alas! he failed to get it. He somehow swam to the other side of the river and stayed hungry.

Moral: Grasp all, lose all.

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 6 Model Activity Task History Part 8 November

Class 6 Combined Model Activity Task

ষষ্ঠ শ্রেণি

ইতিহাস

১. সঠিক শব্দ বেছে নিয়ে শূন্যস্থান পূরণ করাে :

 

১.১ এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে পুরােনাে আদিম মানুষের খোঁজ পাওয়া গেছে ____________ (এশিয়াতে/পূর্ব আফ্রিকাতে/আমেরিকাতে)। 

উত্তর: পূর্ব আফ্রিকাতে ।

১.২ মেহেরগড় সভ্যতা আবিষ্কার করেন ____________ (জাঁ ফ্রঁসােয়া জারিজ/চার্লস ম্যাসন/দয়ারাম সাহানি)।

উত্তর: জাঁ ফ্রঁসােয়া জারিজ ।

১.৩ হরপ্পা সভ্যতা ____________ যুগের সভ্যতা (প্রাক-ইতিহাস / প্রায়-ইতিহাস / ঐতিহাসিক)। 

উত্তর: প্রাক-ইতিহাস ।

২. ক – স্তম্ভের সাথে খ – স্তম্ভ মিলিয়ে লেখাে :

স্তম্ভস্তম্ভ
বন্দর – নগরসিটাডেল
বৃহৎ স্নানাগারলােথাল
উঁচু এলাকামহেনজোদাড়াে

উত্তর:

স্তম্ভ স্তম্ভ
বন্দর – নগর লােথাল
বৃহৎ স্নানাগার মহেনজোদাড়াে
উঁচু এলাকা সিটাডেল

৩. বেমানান শব্দটি খুঁজে লেখাে :

৩.১ সংহিতা, মহাকাব্য, আরণ্যক, উপনিষদ 

উত্তর: মহাকাব্য

৩.২ ব্রহ্মচর্য, গার্হস্থ্য, বানপ্রস্থ, ব্রাক্ষ্মণ

উত্তর: গার্হস্থ্য

৩.৩ বিদথ, সভা, সমিতি, রত্নিন 

উত্তর: রত্নিন 

৪. সত্য বা মিথ্যা নির্ণয় করাে :

৪.১ দক্ষিণ ভারতের একমাত্র মহাজনপদ ছিল অস্মক। 

উত্তর: সত্য 

৪.২ চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য শেষ জীবনে বৌদ্ধ হয়ে যান। 

উত্তর: মিথ্যা 

৪.৩ বিনয়পিটক গৌতম বুদ্ধের মূল কয়েকটি উপদেশের আলােচনা।

উত্তর: মিথ্যা 

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

৫. দু-তিনটি বাক্যে উত্তর দাও :

৫.১ মেহেরগড় সভ্যতায় কোন কোন কৃষি পণ্য উৎপাদিত হত? 

উত্তর: মেহেরগড় সভ্যতায় উৎপাদিত কৃষিপণ্য গুলি দুটি পর্যায়ে উৎপাদিত হত। প্রথম পর্যায়ে পাওয়া যায় গম ও যব জাতীয় শস্য। আর দ্বিতীয় পর্যায়ে গম ও জবের পাশাপাশি পাওয়া যায় কার্পাস চাষের নিদর্শন। মেহেরগড় সভ্যতা পৃথিবীর প্রাচীন কার্পাস উৎপাদন কেন্দ্র।

৫.২ উপমহাদেশের পুরােনাে গুহা-বসতির প্রমাণ পাওয়া গেছে এরকম কয়েকটি স্থানের নাম লেখাে। 

উত্তর: ভারতীয় উপমহাদেশে পুরােনাে গুহা বসতির প্রমাণ পাওয়া গেছে হুন্সগী, ভীমবেটকা ,বাগাের প্রভৃতি স্থানে।

৫.৩ বেদের আরেক নাম শ্রুতি কেন?

উত্তর: বেদ প্রথমদিকে লিখিত আকারে ছিল না। ঈশ্বরের বাণী মুনিঋষিরা মনে রাখতেন এবং তাদের কাছ থেকে শিষ্যরা শুনে শুনে মুখস্ত করতাে। শুনে শুনে মনে রাখা হতাে তাই বেদের আর এক নাম হলাে শ্রুতি।

৫.৪ জনপদ কী?

উত্তর: প্রাচীনকালে বাংলায় যে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ভৌগােলিক এলাকায় জনগণ বসবাস করত তাদের সমষ্টিকে জনপদ বলে।

৬. চার-পাঁচটি বাক্যে উত্তর দাও :

৬.১ মেগালিথ কী? 

উত্তর:  মেগালিথ হচ্ছে একপ্রকার প্রাচীন পাথর যা কোন স্থাপত্য বা মিনার তৈরী করতে এককভাবে বা অনেকগুলো নিয়ে ব্যবহৃত হয়। আর মেগালিথিক মানেই হচ্ছে এই বিশেষ প্রাচীন পাথরের তৈরী কোন স্থাপনা যা মর্টার বা কনক্রিটের ব্যবহার ছাড়াই তৈরী করা হয়েছে এবং অতি অবশ্যই যা প্রাগৈতিহাসিক বলে অভিহিত করা যায়। পরবর্তীতে নির্মিত স্থাপনাগুলোকে অবশ্য মনোলিথিক বলে অভিহিত করা যায়।

৬.২ জাতকের গল্পের মূল বিষয়বস্তু কী?

উত্তর: জাতকের মূল চরিত্র বা অতীতের বোধিসত্ত্বই বর্তমানের বুদ্ধ। অতীত জীবনের সাথে বর্তমান জীবনের সম্পর্ক স্থাপন করা হয় যাকে সমবধান বা সমাধান বলা হয়। জাতকের উপদেশ ও নীতি শিক্ষা মানুষকে মৈত্রী পরায়ণ, দয়াবান, সৎ ও আদর্শবান হতে শেখায়।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

৬.৩ টীকা লেখাে : অর্থশাস্ত্র 

উত্তর: 

অর্থশাস্ত্র: চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের আমলে রচিত কৌটিল্যের অর্থশাস্ত্র’ গ্রন্থটি অর্থনীতি নয়, রাষ্ট্রনীতি বিষয়ক গ্রন্থ কেউ কেউ মনে করেন, কৌটিল্য একটি ছদ্মনাম। কেউ মনে করেন, চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের মন্ত্রী চাণক্যই অর্থশাস্ত্রের রচয়িতা কৌটিল্য। ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে মহীশূরের পণ্ডিত ড. শ্যাম শাস্ত্রী এই গ্রন্থটির পাণ্ডুলিপি আবিষ্কার করেন। গ্রন্থটি অক্ষত অবস্থায় পাওয়া যায়নি। তবে, মােট পনেরােটি ভাগে বিভক্ত এই গ্রন্থটির ছয় হাজার শ্লোক থেকে মৌর্য যুগের (i) রাজ্যশাসন পদ্ধতি, (ii) রাজস্বনীতি, (iii) দেওয়ানি ও ফৌজদারি আইন, (iv) রাষ্ট্রের নিরাপত্তা, (v) গুপ্তচর বিভাগ , (vi) পৌর প্রশাসন, (vii) নারীর অধিকার, (viii) বিবাহবিচ্ছেদ, (ix)। বিধবাবিবাহ (x) গণিকা বৃত্তান্ত প্রভৃতি বিষয়ে জানা যায়। অর্থশাস্ত্র গ্রন্থটি এককথায় সমকালের সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থার দর্পণ ।

৬.৪ মৌর্য সম্রাটরা গুপ্তচর কেন নিয়ােগ করতেন?

উত্তর: কারণ এই গুপ্তচররা বাদশাহকে সমস্ত কিছু সম্পর্কে অবহিত করেছিল, এমনকি সেই রাজ্যের মিনিট বিশদ যা রাজ্যকে যথাযথ এবং সুষ্ঠুভাবে পরিচালিত করতে সহায়তা করেছিল। গুপ্তচরদের এলােমেলােভাবে বাছাই করা হয়নি, পরিবর্তে যােগ্যতার ভিত্তিতে নির্বাচন করা হয়েছিল।

৬.৫ টীকা লেখাে : হর্ষচরিত 

উত্তর: 

হর্ষচরিত: বানভট্ট হর্ষবর্ধনকে নিয়ে হর্ষচরিত কাব্য লেখেন। এটি আদতে একটি প্রশস্তি কাব্য। অর্থাৎ এই কাব্যে হর্ষের কেবল গুনােগান করা হয়েছে। পাশাপাশি পুষ্যভৃতি দের রাজত্ব ও তার ইতিহাস আলােচনা করেছেন বানভট্ট। হর্ষবর্ধনের গুনােগান করতে গিয়ে তার বিরােধীদের ছােট করেছেন বানভট্ট । যেমন রাজা শশাঙ্ককে অনেকভাবে খাটো করে দেখানাের চেষ্টা করেছেন। হর্ষবর্ধনের বােন রাজ্যশ্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে আসার ঘটনার বর্ণনা দিয়ে হর্ষচরিত শেষ হয়েছে। হর্ষচরিত আসলে হর্ষবর্ধনের আংশিক জীবনী। তবে শুধু গুনােগান এর জন্য এটিকে নিরপেক্ষ বলে মেনে নেওয়া মুশকিল।

৭. আট-দশটি বাক্যে উত্তর দাও :

৭.১ তুমি কি মনে করাে, আগুনের ব্যবহার মানুষের ইতিহাসে জরুরি একটি পরিবর্তন? 

উত্তর: মানব সভ্যতার ইতিহাসে যে কয়েকটি যুগান্তকারী পরিবর্তন ঘটেছে। তার মধ্যে অন্যতম হল আগুনের আবিষ্কার ও তার ব্যবহার। এই আবিষ্কারের ফলে মানুষের জীবনশৈলি সম্পূর্ণ পরিবর্তন হয়ে গিয়েছিল। আগুন আবিষ্কার খােলা আকাশের নিচে গুহাবাসী মানুষের শীতে যেমন উষ্ণতা দিয়েছিল ঠিক তেমনি রক্ষা করেছিল হিংস্র বন্য পশুর হাত থেকে। খাদ্যাভ্যাসে কাঁচা মাংসের স্থানে তারা খেতে থাকল পােড়ানাে মাংস। ফলে শারীরিক গঠনের ক্ষেত্রেও বিশেষ পরিবর্তন এসেছিল।

৭.২ বৈদিক যুগের ব্যবসা বাণিজ্য কেমন ছিল? 

উত্তর: বৈদিক যুগের শুরুতে ব্যবসা-বাণিজ্যের তেমন চল ছিল না। সমস্ত মানুষই ছিলেন পশুপালক বা কৃষিজীবি। বৈদিক যুগের মধ্যবর্তী সময় থেকেই সমুদ্রপথে ব্যবসা-বাণিজ্যের সূত্রপাত হয়। বৈদিক যুগে জিনিসপত্র বিনিময় করা হতাে। প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন থেকে পশ্চিম এশিয়ার সঙ্গে ভারতের বাণিজ্যিক সম্পর্কের কথা জানা যায়। মূলত এই সময় ভারত থেকে বনৌষধি, তামা, চন্দন কাঠ, পশুচর্ম, হাতির দাঁত রপ্তানি হতাে; আমদানি করা হতাে সুগন্ধি, কাঁচ,টিন ইত্যাদি।

৭.৩ নব্যধর্ম আন্দোলন কেন গড়ে উঠেছিল?

উত্তর: উত্তর: খ্রিস্টপূর্ব ষষ্ঠ শতকে নাগাদ ভারতীয় উপমহাদেশে সমাজ, অর্থনীতি ও রাজনীতি বদলাতে শুরু করে। নতুন নতুন নগর গড়ে ওঠে। ব্যবসায়ীদের মধ্যে অনেকেই ধনি ছিল। যজ্ঞে পশু বলি দেওয়া কৃষকদের পক্ষে ছিল ক্ষতিকর। আগে বর্ণ ভাগ ছিল কাজের ভিত্তিতে পরে তা জন্মগত ও ধর্মের বহুলতা আচার সর্বস্বতা একসময় বৈদিক ধর্ম থেকে সাধারণ মানুষকে মুখ ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করেছিল। সমুদ্রযাত্রা নিষিদ্ধ, সুদে টাকা খাটানো নিন্দনীয় প্রভৃতি বিষয় শুরু হাওয়ায় ব্যবসায়ীরা বিপদে পড়েছিল, তাই তারা নতুন ধর্মের দিকে ঝুঁকতে আরম্ভ করেছিল। বৈশ্যদের পাশাপাশি ক্ষত্রিয়রাও নতুন ধর্মের দিকে ঝুকে ছিল যা হবে সহজ-সরল। এই চাহিদার জন্য পথে এসেছিল দুটি নতুন ধর্ম – জৈন ধর্ম এবং বৌদ্ধ ধর্ম। ব্রাহ্মণ্য ধর্মের যাগযজ্ঞের বিরোধিতা করে পশুবলি নিষিদ্ধ করে বেদের বিরোধিতা করে ধর্ম সম্পর্কে এক নতুন পথের সন্ধান দেয়। এই সব ধর্মের প্রচার করার জন্য নতুন নতুন অনেক কথা বলেছিলেন যা সাধারণ মানুষকে আকর্ষণ করেছিল। আর এই নতুন ধর্মমত গুলোই নব্য ধর্ম নামে পরিচিত হয়েছিল।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

SWG Academy

Class 6 Model Activity Task Geography Part 8 November

Class 6 Combined Model Activity Task

ষষ্ঠ শ্রেণি

পরিবেশ ও ভূগোল

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখাে : 

১.১ ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করাে — 

ক) গ্রহ – নিজস্ব আলাে আছে

খ) গ্রহাণু – গ্রহের তুলনায় আয়তনে বড় 

গ) উপগ্রহ – নক্ষত্রের আলােয় আলােকিত 

ঘ) উল্কা – লেজবিশিষ্ট উজ্জ্বল জ্যোতিষ্ক 

উত্তর: গ) উপগ্রহ – নক্ষত্রের আলােয় আলােকিত 

১.২ নিরক্ষরেখার সমান্তরালে উত্তর গােলার্ধে বিস্তৃত কাল্পনিক রেখা হলাে – 

ক) মকরক্রান্তি রেখা

খ) কর্কটক্রান্তি রেখা 

গ) মূলমধ্য রেখা

ঘ) কুমেরুবৃত্ত রেখা 

উত্তর: খ) কর্কটক্রান্তি রেখা 

১.৩ নীচের যে রাজ্যটির ওপর দিয়ে কর্কটক্রান্তি রেখা বিস্তৃত সেটি হলাে – 

ক) অরুণাচল প্রদেশ

খ) মহারাষ্ট্র 

গ) হিমাচল প্রদেশ

ঘ) পশ্চিমবঙ্গ 

উত্তর: ঘ) পশ্চিমবঙ্গ

১.৪ সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে জীবকূলকে রক্ষাকারী ওজোন স্তর আছে – 

ক) ট্রপােস্ফিয়ারে

খ) স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারে 

গ) আয়নােস্ফিয়ারে

ঘ) এক্সোস্ফিয়ারে 

উত্তর: খ) স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারে

১.৫ আন্টার্কটিকার একটি স্বাভাবিক উদ্ভিদ হলাে – 

ক) পাইন

খ) শাল 

গ) মস

ঘ) সেগুন 

উত্তর: গ) মস

১.৬ ভারতের মরু অঞ্চলের মাটির অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য হলাে – 

ক) মাটির জলধারণ ক্ষমতা বেশি

খ) মাটিতে লােহার পরিমাণ বেশি 

গ) মাটির জলধারণ ক্ষমতা কম

ঘ) মাটিতে জৈব পদার্থের পরিমাণ বেশি 

উত্তর: গ) মাটির জলধারণ ক্ষমতা কম

১.৭ উত্তর আমেরিকা ও ইউরােপের মাঝে অবস্থিত মহাসাগরটি হলাে – 

ক) প্রশান্ত মহাসাগর

খ) আটলান্টিক মহাসাগর 

গ) ভারত মহাসাগর

ঘ) সুমেরু মহাসাগর

উত্তর: খ) আটলান্টিক মহাসাগর

১.৮ পশ্চিমবঙ্গের জলবায়ুর প্রকৃতি –

ক) উষ্ণ-আর্দ্র

খ) শীতল-আর্দ্র

গ) শীতল-শুষ্ক 

ঘ) উষ্ণ-শুষ্ক

উত্তর: ক) উষ্ণ-আর্দ্র

১.৯ ভারতের একটি পশ্চিমবাহিনী নদী হলাে –

ক) কাবেরী 

খ) গােদাবরী

গ) নর্মদা

ঘ) মহানদী

উত্তর: গ) নর্মদা

২. শূন্যস্থান পূরণ করাে :

২.১ সমুদ্রের কাছাকাছি অঞ্চলের জলবায়ু ___________ প্রকৃতির হয়। 

উত্তর:  সমভাবাপন্ন 

২.২ নির্দিষ্ট ঋতুতে যে গাছের পাতা ঝরে পড়ে তাকে ___________ উদ্ভিদ বলে। 

উত্তর: পর্ণমোচী 

২.৩ সাধারণত শীতকালে শীতল অঞ্চল থেকে যে পাখিরা আমাদের দেশে উড়ে আসে তারা ___________ পাখি নামে পরিচিত। 

উত্তর:  পরিযায়ী 

৩. বাক্যটি সত্য হলে ‘ঠিক’ এবং অসত্য হলে ‘ভুল’ লেখাে :

৩.১ গােলাকার পৃথিবী দ্রুত গতিতে আবর্তন করায় এটি মাঝ বরাবর স্ফীত।। 

উত্তর: ‘ঠিক’

৩.২ ০° ও ১৮০° দ্রাঘিমারেখা প্রকৃতপক্ষে একটিই রেখা। 

উত্তর: ‘ভুল’

৩.৩ সূর্যের দৈনিক আপাত গতির মূল কারণ পৃথিবীর আবর্তন।

উত্তর: ‘ঠিক’

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

৪. স্তম্ভ মেলাও :

ক স্তম্ভখ স্তম্ভ
৪.১ আর্দ্রতাi) প্যানজিয়া
৪.২ ভারতের সর্বোচ্চ শৃঙ্গii) হাইগ্রোমিটার
৪.৩ অখণ্ড স্থলভাগiii) গডউইন অস্টিন

উত্তর:

ক স্তম্ভ খ স্তম্ভ
৪.১ আর্দ্রতা ii) হাইগ্রোমিটার
৪.২ ভারতের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ iii) গডউইন অস্টিন
৪.৩ অখণ্ড স্থলভাগ i) প্যানজিয়া

৫. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :

৫.১ তারার রঙের সঙ্গে উষ্ণতার সম্পর্ক লেখাে। 

উত্তর:  তারার রঙের সঙ্গে উষ্ণতার সম্পর্ক : 

(1) যে সমস্ত তারাদের উষ্ণতা কম তাদের রং লাল হয় । 

(2) একটু বেশি উষ্ণতার তারাদের রং হলুদ হয় ।

৫.২ দিগন্তরেখা কাকে বলে? 

উত্তর:  দিগন্তরেখা : সমুদ্র কিংবা বিশাল প্রান্তরের ধারে দাঁড়িয়ে দূরে তাকালে মনে হয় – জলরাশি বা ভূমি এবং আকাশ যেন একটি বৃত্তরেখায় মিশে গিয়েছে । এই কাল্পনিক রেখাকে দিগন্তরেখা বা Horizon বলে ।

৫.৩ বারিমণ্ডল কীভাবে সৃষ্টি হয়েছে? 

উত্তর:  পৃথিবী সৃষ্টির বহু কোটি বছর পর পৃথিবীর বাইরের আবরণ শীতল হয়ে এলে প্রচুর জলীয়বাষ্প সৃষ্টি হয় । এই জলীয়বাষ্প উপরে উঠে ঠান্ডা হয়ে বৃষ্টির আকারে অবিশ্রান্তভাবে ঝরতে থাকে পৃথিবীতে । শত শত বছর ধরে প্রবল বৃষ্টিপাতের ফলে পৃথিবীর নিচু জায়গা গুলো জলে ভরাট হয়ে সাগর – মহাসাগর হ্রদ তৈরি করে।এভাবেই বিশাল জলভান্ডার বা বারিমন্ডলের সৃষ্টি হয়েছে ।

৫.৪ বিকিরণ পদ্ধতিতে কীভাবে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল উত্তপ্ত হয় ? 

উত্তর: যে পদ্ধতিতে কোনো মাধ্যম ছাড়াই বা মাধ্যম থাকলেও তাকে উত্তপ্ত না করে তাপ এক বস্তু থেকে অন্য বস্তুতে চলে যায়, সেই পদ্ধতিকে বিকিরণ পদ্ধতি বলে । বায়ুমণ্ডল সূর্যকিরণের দ্বারা সরাসরিভাবে উত্তপ্ত হয় না । সুর্য থেকে আলোর তরঙ্গ বায়ুমণ্ডল ভেদ করে ভূপৃষ্ঠে এসে পড়ে । সূর্য থেকে আগত বিকিরিত তাপশক্তি পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের মধ্য দিয়ে ভূপৃষ্ঠে এসে পড়লেও বায়ুমণ্ডলকে প্রথমে উত্তপ্ত না করে ভূপৃষ্ঠে এসে পড়ে । ভূপৃষ্ঠ সেই তাপ শোষণ করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে । ভূপৃষ্ঠ উত্তপ্ত হয়ে উঠলে আলোক চৌম্বকীয় তরঙ্গরূপে সেই তাপের বিকিরণ শুরু হয় ও ভূপৃষ্ঠ সংলগ্ন বায়ুস্তর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

৬. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

৬.১ পৃথিবীর কাল্পনিক অক্ষ কক্ষতলের সঙ্গে কত ডিগ্রি কোণে হেলে অবস্থান করছে তার একটি চিহ্নিত চিত্র আঁকো। 

উত্তর: 

class 6 model activity task part 8 1

৬.২ পলিমাটির তিনটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করাে।

উত্তর:  পলিমাটির তিনটি বৈশিষ্ট্য হলো- 

(1) পলিমাটিতে জৈব পদার্থ বেশি থাকে । 

(2) এই মাটিতে ধান , পাট , গম প্রভৃতি ফসল অত্যন্ত ভালো হয় কারণ এই মাটি খুব উর্বর । 

(3) পলিমাটির জলধারণ ক্ষমতা বেশি ।

৬.৩ বিশ্ব উষ্ণায়নের কারণে পৃথিবীর শীতলতম মহাদেশ কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে? 

উত্তর: বিশ্ব উষ্ণায়ন বা গ্লোবাল ওয়ার্মিং-এর ফলে পৃথিবীজুড়ে তাপমাত্রা একটু একটু করে অস্বাভাবিক মাত্রায় বেড়ে চলার কারণে  বিষুবীয় ও মেরু অঞ্চলের তাপমাত্রা দ্রুত বাড়ছে ।ক্রমাগত উষ্ণতা বাড়ার ফলে প্রতিদিন একটু একটু করে গলে যাচ্ছে আন্টার্কটিকার বরফ,কমে যাচ্ছে মহাদেশটার আয়তন। ফলে ক্রিল, সিল, পেঙ্গুইন সবারই সংখ্যা কমছে,নষ্ট হচ্ছে আন্টার্কটিকার প্রাকৃতিক ভারসাম্য । বরফের এই অস্বাভাবিক গলনের ফলে ফলে সমুদ্রের জলস্তরও একটু একটু করে ঊর্ধ্বগামী হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে, আর ১০০ বছরের মধ্যে হিমশৈলসহ সুমেরু কুমেরুতে জমে থাকা সমস্ত বরফ জলে পরিনত হবে ।

৭. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও :

৭.১ হিমালয়ের উত্তর থেকে দক্ষিণে বিস্তৃত তিনটি সমান্তরাল পর্বতশ্রেণির সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দাও। 

উত্তর:  হিমালয়ের উত্তর থেকে দক্ষিনে বিস্তৃত তিনটি পর্বতশ্রেণী হল- ( 1 . ) হিমাদ্রি হিমালয় ( 2 ) হিমাচল হিমালয় ( 3 ) শিবালিক হিমালয় ।

(1) হিমাদ্রি হিমালয় : হিমাদ্রি হিমালয়ের গড় উচ্চতা প্রায় 6000 মিটারের বেশি।এই হিমালয়ের উল্লেখযোগ্য কয়েকটি শৃঙ্গ হল — মাউন্ট এভারেস্ট , কাঞ্চনজঙ্ঘা , মাকালু প্রভৃতি । 

(2) হিমাচল হিমালয় : হিমাদ্রি হিমালয়ের দক্ষিণ দিকে হিমাচল হিমালয় অবস্থিত । এই অংশের গড় উচ্চতা প্রায় 3000 মিটারের বেশি । কেদারনাথ , বদ্রিনাথ বিখ্যাত পর্বতশৃঙ্গ গুলি এই হিমালয়ের , অংশ । 

(3) শিবালিক হিমালয় : হিমাচল হিমালয়ের দক্ষিণ দিকে শিবালিক হিমালয় অবস্থিত।এই দুই হিমালয়ের মাঝের উপত্যকাগুলিকে ‘ দুন ‘ বলে । এই হিমালয়ের গড় উচ্চতা প্রায় 1500 মিটার ।

 

৭.২ বায়ুচাপ ও বায়ুপ্রবাহ কোনাে অঞ্চলের আবহাওয়াকে কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করে তা ব্যাখ্যা করাে। 

উত্তর:  কোন অঞ্চলের আবহাওয়া কে বায়ুচাপ ও বায়ুপ্রবাহ বিভিন্নভাবেই নিয়ন্ত্রণ করে । যেমন – 

বায়ুর চাপ : নিম্নচাপ বলয়ে উত্তপ্ত বায়ু উচ্চচাপের বলয়ের দিকে প্রবাহিত হওয়ায় উচ্চচাপ যুক্ত অঞ্চলের তাপমাত্রা বেড়ে যায় এর ফলে আবহাওয়ার পরিবর্তন ঘটে ।

বায়ুপ্রবাহ : কোন স্থানের উপর দিয়ে যদি জলীয় বাষ্পপূর্ণ বায়ু প্রবাহিত হয় তাহলে সেখানে বৃষ্টিপাত ঘটতে দেখা যায় । অপরদিকে শুষ্ক বায়ু প্রবাহিত হলে বৃষ্টিপাত হয় না । এভাবেই বায়ুর চাপ ও বায়ুপ্রবাহ আবহাওয়া কে নিয়ন্ত্রণ করে ।

৭.৩ অরণ্য সংরক্ষণ করা কেন প্রয়ােজন বলে তুমি মনে করাে?

উত্তর:  অরণ্য সংরক্ষণ করা বিশেষভাবে প্রয়োজন , কারণ — 

(1) গাছ আমাদের অক্সিজেন দেয় এবং বাতাস থেকে কার্বন – ডাই – অক্সাইড শোষণ করে । তাই নিজেদের বাঁচিয়ে রাখার জন্যই আমাদের অরণ্য সংরক্ষণ করা উচিত । 

(2) অরণ্য বৃষ্টিপাত ঘটায় ও খরা নিয়ন্ত্রণ করে । 

(3) অরণ্য থেকে মধু , মোম , জ্বালানি , গদ , আঠা , বিভিন্ন ঔষধি গাছ পাওয়া যায় যা মানুষের জীবন বাঁচাতে ও জীবিকা অর্জনে সাহায্য করে । 

(4) বন্যপ্রাণীদের বিলুপ্তির হাত থেকে বাঁচানোর জন্য অরণ্য সংরক্ষণ করা প্রয়োজন । 

(5) অরণ্য প্রকৃতি ও বাস্তুতন্ত্রের ভারসাম্য রক্ষা করে ।

 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education) – Click Here

ALL Class ALL Model Activities Click Here
 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
 Class 6 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
 Class 7 Model Activity Task Part 8 (Bengali, English, History, Geography )Click Here

 Class 7 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)

Click Here
 Class 8 Model Activity Task Part 8 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
 Class 8 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
Class 9 Model Activity Task Part 8 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
Class 9 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here
Class 10 Model Activity Task Part 8 (Bengali, English, History, Geography )Click Here
Class 10 Model Activity Task Part 8 (Science, Mathematics, Health & Physical Education)Click Here

1 thought on “Class 6 Model Activity Task Part 8 November New 2021 | ষষ্ঠ শ্রেণী মডেল অ্যাক্টিভিটি | Bengali, English, History, Geography”

Leave a Comment

Your email address will not be published.